অজয় দেবগনের ‘দৃশ্যম’ সিনেমায় উদ্বুদ্ধ হয়ে হত্যা, বিজেপি নেতাসহ গ্রেপ্তার ৫

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯ | আপডেট: ১১:১৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৩, ২০১৯
সংগৃহীত

ভারতে সাড়া জাগানো অজয় দেবগন অভিনীত সিনেমা ‘দৃশ্যম’ দেখে উদ্বুদ্ধ হয়ে এক তরুণীকে হত্যার দায়ে ক্ষমতাসীন বিজেপির এক নেতাসহ পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমাটি দেখে টুইঙ্কেল দাগরে নামের ২২ বছর বয়সি ওই তরুণীকে হত্যায় উদ্বুদ্ধ হন বিজেপি নেতা জগদীশ করোতিয়া ওরফে কাল্লু পালোয়ান। হত্যায় জড়িত থাকার অভিযোগে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

গ্রেপ্তার হওয়া অন্য চারজন হলেন- জগদীশ করোতিয়ার তিন ছেলে অজয়, বিজয়, বিনয় ও তাদের সহযোগী নীলিশ কাশ্যপ।

ভারতের ইন্দোরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটে। ইন্দোরের ডিআইজি হরিনারায়ণচারী মিশ্র সাংবাদিকদের জানান, বানগঙ্গা এলাকার তরুণী দাগরে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে এই পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

তিনি জানান, জগদীশ করোতিয়ার সাথে দাগরের অবৈধ সম্পর্ক ছিল। দাগরে চাইছিল জগদীশের সঙ্গে থাকতে। এটি নিয়ে জগদীশের পরিবারে ঝামেলার সৃষ্টি হয়। পরে পারিবারিক বিবাদের জের ধরে জগদীশ ও তার তিন ছেলে টুইঙ্কেল দাগরেকে হত্যার ষড়যন্ত্র করে। পরে ২০১৫ সালের ১৬ অক্টোবর দাগরেকে গলা কেটে হত্যা করে তার লাশ পুড়িয়ে ফেলা হয়।

ডিআইজি জানান, দাগরের লাশ যেখানে পুড়িয়ে ফেলা হয় সেখান থেকে পুলিশ একটি ব্রেসলেট ও কিছু অলঙ্কার উদ্ধার করেছে। এরপর পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

ডিআইজি বলেন, ‘আমরা জানতে পেরেছি যে, হত্যাকারীরা হত্যাকাণ্ডের আগে দৃশ্যম সিনেমা দেখে। পরে সিনেমাটির একটি দৃশ্যে উদ্বুদ্ধ হয়ে একটি জায়গায় একটি কুকুরের লাশ পুঁতে রাখে।

পরে তারা এ খবর ছড়িয়ে দেয় যে, কেউ ওই জায়গায় মানুষের লাশ পুঁতে রেখেছে। যখন পুলিশ জায়গাটি খনন করে তখন কুকুরের মৃতদেহ পাওয়া যায়। এ ঘটনার মাধ্যমে পুলিশের তদন্তকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করা হয়।’ তথ্য : এনডিটিভি