অবৈধভাবে সিম বিক্রির অভিযোগে জিপির কর্মকর্তা ও পরিবেশক গ্রেপ্তার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:৩৩ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৩৩:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৭, ২০১৮

বিভিন্ন কোম্পানির নামে নিবন্ধিত সিম অন্য কারো কাছে বিক্রির অভিযোগে দুই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।গ্রেপ্তারকৃতদের মধ্যে একজন গ্রামীণফোনের সিনিয়র এক্সিকিউটিভ (বিজনেস সেলস) সৈয়দ তানভীরুর রহমান (৩৫), আরেকজন অপারেটরটির পরিবেশক তৌফিক হোসেন পলাশ (৩৮)।গ্রেপ্তারকৃতরা বিভিন্ন কোম্পানির নামে অনুমতি ছাড়াই প্রয়োজনের চেয়ে বেশি সিম নিবন্ধন করে তা অনেক দামে বিক্রি করতো।

আর এসব সিম সাধারণত অবৈধ ভিওআইপি, হুমকিসহ নানা অপরাধমূলক কাজে ব্যবহার হতো বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৪ এর অধিনায়ক চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির।রোববার দুপুরে রাজধানীর কারওয়ান বাজারে র‌্যাবের মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, গ্রেপ্তারকৃতরা ৪২টি কোম্পানির নামে ৮৬৭টি সিম ইস্যু করেছে।

এগুলো এসব কোম্পানির অনুমতি ছাড়াই করা হয়েছিল।শনিবার রাতে রাজধানীর মিরপুর এলাকা হতে আটকের সময় তাদের কাছ হতে ৫৫৩টি সিম, বায়োমেট্রিক নিবন্ধনের কাজে ব্যবহৃত ১টি ল্যাপটপ ও ৯টি ট্যাব উদ্ধার করেছে র‍্যাব।সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাব জানায়, গ্রামীণফোনের দুটি নম্বর হতে এক শ্রীলঙ্কান নাগরিকের কাছ থেকে ১০ কোটি টাকা চাঁদা দাবি করা হয়েছিল।

যে ঘটনায় ১৯ সেপ্টেম্বর ভাষাটেক থানায় জিডি হয়েছিল।পরে এর তদন্তে জানা যায়, এই নম্বর দুটি মাইক্রোকডেস ইনফরমেশন নামে একটি কোম্পানির নামে নিবন্ধন করা। যা তৌফিক হোসেন খান পলাশের মালিকানাধীন মোনাডিক বাংলাদেশ ডিসট্রিবিউশন হাউজের মাধ্যমে ইস্যু করা হয়েছে। আর গ্রামীণফোন হতে এই হাউজের দায়িত্বে ছিলেন সৈয়দ তানভীরুর রহমান।