আইসিসির অদ্ভুত নিয়ম নিয়ে হাস্যকর ব্যাখ্যা দিলেন অমিতাভ

প্রকাশিত: ৫:২৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ৫:২৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ১৭, ২০১৯

একটা ওভার থ্রো। আর তাতেই যেন মুহূর্তের মধ্যে বদলে গেলো বিশ্বকাপ ফাইনালের পুরো চিত্র। যেখানে নিশ্চিত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মুখোমুখি দাঁড়িয়ে, সেখানে সেই এক ওভার থ্রোয়ে প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ডের হাতের মুঠোয় চলে যায় পুরো ম্যাচ।

বাকিটা তো ইতিহাস। ম্যাচ হলো টাই। এরপর সুপার ওভার। সেখানেও টাই। শেষ পর্যন্ত বাউন্ডারি ব্যবধানে হারতে হলো নিউজিল্যান্ডকে। বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হলো ইংল্যান্ড।

আইসিসির বাউন্ডারি গণনার এমন অদ্ভুত নিয়মে ইংল্যান্ডের বিশ্বজয়ের এ ইতিহাস হজম করা অনেকের পক্ষেই কঠিন হয়ে পড়েছে। যে কারণে টুর্নামেন্ট শেষ হওয়ার দুদিন পরও এ নিয়ে আলোচনায় সরগরম নেট দুনিয়া। বিশ্বের সাবেক ক্রিকেটাররা তো বটেই, আইসিসির নিয়ম নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিনোদুনিয়ার তারকারাও।

বাউন্ডারি গণনার নিয়মকে তুলাধুনা করেছেন বলিউড চিত্র পরিচালক অনুরাগ কাশ্যপ। তবে বলিউডের বিগ বি নামে পরিচিত অমিতাভ বচ্চন যেভাবে বাউন্ডারি গণনার নিয়মকে ব্যাখ্যা করেছেন, তাতে আইসিসিকেই পুরো হাস্যরসে পরিণত করে দিয়েছেন তিনি। একই সঙ্গে নেটিজেনদেরও মন কাড়লেন তিনি।

শিরোপা নির্ধারণী ম্যাচে ২৪টি বাউন্ডারি হাঁকায় ইংল্যান্ড। সেখানে নিউজিল্যান্ড মারে ১৬টি। সব মিলিয়ে কিউইদের তুলনায় বেশি বাউন্ডারি মারায় বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হন ইংলিশরা।

আইসিসির এ নিয়ম কতটা হাস্যকর, টুইটবার্তায় সেটিই বোঝালেন অমিতাভ। হিন্দি ভাষায় তিনি লিখেছেন- আমার কাছে আছে ২০০০ টাকা, আপনার কাছেও রয়েছে ২০০০ টাকা। কিন্তু আপনার কাছে আছে ২০০০ টাকার একটি নোট এবং আমার কাছে রয়েছে ৫০০ টাকার ৪টি। তা হলে বলুন তো কে বেশি ধনী? আইসিসির উত্তর- যার কাছে ৫০০ টাকার ৪টি নোট, সে-ই বড়লোক। প্রণাম গুরুদেব।

বিগ বি’র এমন মজাদার ব্যাখ্যার পর আইসিসির নিয়ম নিয়ে নতুন করে সোশ্যাল মিডিয়ায় শুরু হয়েছে আলোচনা-সমালোচনার নতুন স্রোত। তার টুইটেই প্রায় ১৬ হাজার রিটুইট হয়েছে, যেখানে আইসিসির কঠোর সমালোচনা করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাক্টিভিস্টরা। যদিও এনিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও মন্তব্য করেনি আইসিসি। কিন্তু মার্টিন গাপটিলের ওভার থ্রো নিয়ে মুখ খুলেছে বিশ্ব ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা।

আইসিসির বক্তব্য, মাঠে আম্পায়াররা নিয়ম মেনে নিজেদের মতো করে সিদ্ধান্ত নেন। পলিসি মেনে তাদের সিদ্ধান্ত নিয়ে কোনও মন্তব্য করা যায় না। আইসিসির বক্তব্যেই স্পষ্ট, এসব নিয়ে আর আলোচনার কোনও মানেই হয় না। এদিকে, নিউজিল্যান্ড দলও জানিয়েছে, ম্যাচের আগে পর্যন্তও তারা আইসিসির এই নিয়মের কথা জানত না।