আজই পদত্যাগ করছেন ৪ মন্ত্রী!

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৪:০৭ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ৪:০৭:অপরাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮
সংগৃহীত

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, মন্ত্রীসভার টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের অনুষ্ঠিত মন্ত্রিপরিষদের সভায় এই নির্দেশ দেন তিনি।

মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) দুপুরে গণভবনে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা জানিয়েছেন। তিনি জানান, আজ মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠক শেষে স্বল্প পরিসরের আরেকটি বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন।

তিনি বলেন, ‘আজকের মন্ত্রী সভার আনুষ্ঠানিক সমাপ্তি শেষে অনানুষ্ঠানিক বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রী সভার টেকনোক্র্যাট মিনিস্টারদের পদত্যাগ করতে নির্দেশ দিয়েছেন, অন্যরা স্ব-পদে বহাল থাকবেন। তাদের পদত্যাগ করতে হবে না।’

ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘জোটের বিষয়ে আমাদের দফায় দফায় বসতে হবে। এখন আমাদের এঙ্গেজ থাকার কোনো সুযোগ নেই। সংলাপ যখন শেষ হবে তখন প্রধানমন্ত্রী সাংবাদিকদের সামনে একটা স্পিচ দেবেন। সংলাপের ফলাফলের ভিত্তিতে ৮ তারিখ দুপুর ১২টায় গণভবনে সংবাদ সন্মেলন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।’

তিনি আরও জানান, সংলাপের সারসংক্ষেপ নিয়ে ৮ নভেম্বর দুপুর সাড়ে ১২ টায় গণভবনে সংবাদ সন্মেলন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

জানা গেছে, আজ মন্ত্রিপরিষদের বৈঠকের পরই তারা সবাই প্রধানন্ত্রীর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দেবেন। এর পর প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে যাবে তাদের পদত্যাগপত্র। সেখান থেকে আবার যাবে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে।

পরে প্রধানমন্ত্রীর চূড়ান্ত অনুমোদনের পর তার কার্যালয় থেকে টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগপত্র যাবে রাষ্ট্রপতির কাছে বঙ্গভবনে। এরপর মন্ত্রিপরিষদ থেকে এ ব্যাপারে প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।

অন্যদিকে, এ বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল বলেন, ‘টেকনোক্র্যাট মন্ত্রীদের পদত্যাগ সম্পর্কে কোনও কাগজপত্র আমি এখনও পাইনি। তবে কাগজ পাওয়া মাত্রই দ্রুত সব প্রক্রিয়া সম্পন্ন করবো। বঙ্গভবন থেকে অনুমোদন পেয়ে আসলেই প্রজ্ঞাপন জারি করা হবে।’

বর্তমান সরকারের টেকনোক্র্যাট মন্ত্রী হচ্ছেন- ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান, প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম বিএসসি, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রী ইয়াফেস ওসমান এবং ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।