আবারো জরুরি সংবাদ সম্মেলনে আসছেন ড. কামাল

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:০৬ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ | আপডেট: ১১:০৬:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯
জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন। ফাইল ছবি

আজ শনিবার (৫ জানুয়ারি) সকাল ১০টায় তোপখানা রোড সংলগ্ন সেগুনবাগিচায় শিশুকল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে (দ্বিতীয় তলায়) এ বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত হবে। পরে বিকেল ৪ টায় সংবাদ সম্মেলন করবেন ড. কামাল হোসেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর ও গণফোরাম নেতা লতিফুল বারী বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, সকাল ১০টায় তোপখানা রোডের শিশুকল্যাণ পরিষদ মিলনায়তনে এই সভা অনুষ্ঠিত হবে। সভায় নির্বাচন পরবর্তী করণীয় নিয়ে আলোচনা করা হবে।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দুটি আসনে জয় পেয়েছে ড. কামাল হোসেনের গণফোরাম। ঐক্যফ্রন্টে শরীক দলটি এখনো শপথ নেওয়ার বিষয়ে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়নি। যদিও ঐক্যফ্রন্টের নেতৃত্বে থাকা বিএনপি জানিয়ে দিয়েছে বিএনপির বিজয়ী প্রার্থীরা সংসদে যাবে না।

গুঞ্জন উঠেছে বিএনপি সংসদে না গেলে গণফোরামের দুইজন বিজয়ী সংসদে যেতে চান। তারা হলেন, সিলেট-২ আসন থেকে মোকাব্বির খান ও মৌলভীবাজার-২ আসন থেকে সুলতান মোহাম্মদ মনসুর। এ বিষয়ে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘এ বিষয়ে আমরা এখনো সিদ্ধান্ত নেইনি। আগামীকাল দলীয় মিটিং আছে। সেখানে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

তবে গণফোরাম সূত্রে জানা গেছে, জানা গেছে, সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নিতে চান সুলতান মনসুর ও মোকাব্বির খান। তাদের মতে সংসদের বাইরে শুধু নয় সংসদের ভেতরে থেকেও সরকারের সমালোচনা করা প্রয়োজন।

সংসদ সদস্য হিসেবে শপথ নেবেন কি না- জানতে চাইলে মৌলভীবাজার-২ (কুলাউড়া) আসন থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্য ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মনসুর বলেন, ‘ধৈর্য ধরেন, অপেক্ষা করেন। ওয়েট… ওয়েট… ওয়েট…। দেখতে পাবেন।’

জানা গেছে, শপথ নেওয়ার চাপ রয়েছে সুলতান মনসুরের উপর। কুলাউড়া উপজেলা গণফোরামের আহ্বায়ক মতাহির আলম চৌধুরী বলেন, এলাকার মানুষের প্রত্যাশা পূরণে সুলতান মনসুরের এমপি হিসেবে শপথ নেওয়া উচিত।

তিনি বলেন, অনেক প্রতিকূলতার মধ্যে মামলা-মোকদ্দমা নিয়ে মানুষ ভোট দিয়ে তাকে নির্বাচিত করেছেন। তাদের আমানত রক্ষার দায়িত্ব নির্বাচিত জনপ্রতিনিধির। এমপি হিসেবে শান্তি-শৃঙ্খলা ও উন্নয়নের দায়িত্ব তার ওপর। তার নির্বাচনী এলাকার মানুষ কী চাচ্ছেন- জানতে চাইলে সুলতান মনসুর বলেন, ‘এলাকার মানুষের মতামত অগ্রাহ্য করা হবে না।’