আমরা রাজনীতির মানুষ, তাই নির্বাচন করতে চাই : সালাহউদ্দিন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৩৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০১৮ | আপডেট: ৫:৩৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৭, ২০১৮

ভারতে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে করা মামলায় বেকসুর খালাস পাওয়া বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাহউদ্দিন আহমেদ ন্যায় বিচার পেয়েছেন বলে জানিয়েছেন। সেই সঙ্গে তিনি দ্রুত দেশে ফিরে এসে নির্বাচনে অংশ নিতে উদগ্রীব। গতকাল শুক্রবার রায় ঘোষণার পর বিবিসিকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা জানান।

শুক্রবার মেঘালয় রাজ্যের শিলংয়ের বিচারিক হাকিম ডিজি খার সিংয়ের আদালত সালাহউদ্দিনকে বেকসুর খালাস দেন। একই সঙ্গে তাকে বাংলাদেশে ফেরত পাঠাতে পুলিশকে নির্দেশ দেন।

রায়ে সন্তোষ প্রকাশ করে সালাহউদ্দিন বলেন, এখন যত দ্রুত সম্ভব প্রত্যাবর্তন প্রক্রিয়াটা সম্পূর্ণ হলেই আমার পক্ষে ভালো। আমি দ্রুত দেশের মানুষের কাছে ফিরতে চাই।

রাজনীতিতে ফেরার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা রাজনীতির মানুষ, তাই রাজনীতিতেই সব সময়েই আছি -সে আমি পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকি না কেন। বর্তমানে দেশে যে গণতন্ত্র মুক্তির আন্দোলন চলছে, তার সঙ্গেই সবসময়ে আছি।

রায়ের পর সাংবাদিকদের সালাহউদ্দিন বলেন, আদালত আমাকে খালাস দিয়ে ন্যায়বিচার সম্পন্ন করায় আমি আনন্দিত। তারা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়ার সঙ্গে জড়িতদের আমার যত দ্রুত সম্ভব দেশে ফেরার ব্যাপারে নির্দেশনা দিয়েছেন। আমি ন্যায়বিচার পেয়েছি। দ্রুত দেশে ফিরতে চাই।

তৃতীয় কোনো দেশে আশ্রয় নিতে চান কিনা এ ব্যাপারে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের সাবেক এ প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমি কখনও এটা বলিনি যে আমি তৃতীয় কোনো দেশে যেতে চাই। আমি দ্রুত আমার নিজ দেশে ফেরার অপেক্ষায় রয়েছি।

এছাড়া আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করারও পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বিএনপির এ নেতা। তবে সেটা নির্ভর করছে কত দ্রুত তিনি দেশে ফিরতে পারছেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৫ সালে হঠাৎ নিখোঁজ হওয়ার কয়েক মাস পর ১১ মে মেঘালয়ের রাজধানী শিলংয়ের গলফ লিঙ্ক এলাকায় সালাহউদ্দিন আহমেদকে দেখতে পায় পুলিশ। তখন পুলিশ জানিয়েছিল, সালাহউদ্দিন উদভ্রান্তের মতো ঘোরাফেরা করছিলেন। পরে তাকে অবৈধ অনুপ্রবেশের অভিযোগে আটক করা হয়। দীর্ঘ বিচার প্রক্রিয়া শেষে গতকাল শুক্রবার তিনি বেকসুর খালাস পান।