আমলাদের দুর্নীতি কমলেও নিম্নস্তরে রয়েছে: সালমান রহমান

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১ | আপডেট: ১০:৪৫:পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি শিল্প ও বিনিয়োগ বিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান বলেছেন, উন্নয়ন আর সমৃদ্ধির পূর্বশর্ত রাজনৈতিক স্থিতিশীলতা এবং সরকারের প্রতি জনসাধারণের আস্থার ক্ষেত্রে বাংলাদেশে অভূতপূর্ব অগ্রগতি হয়েছে।

সরকারের উচ্চ পর্যায়ের আমলাদের মধ্যে দুর্নীতির মাত্রা একেবারেই কমে এসেছে। তবে এটা বলতে দ্বিধা নেই, নিম্নস্তরে এখনও ঘুষ-দুর্নীতি অব্যাহত রয়েছে।

নিউ ইয়র্ক সিটির ম্যানহাটানে ইন্টারকন্টিনেন্টাল বার্কলে হোটেলের এম্পায়ার বলরুমে সোমবার ‘দ্য রাইজ অব বেঙ্গল টাইগার: পটেনশিয়াল অব ট্রেড অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ শীর্ষক বিনিয়োগ সম্মেলনে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের উদ্যোগে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের রাজধানী ওয়াশিংটন ডিসি, ক্যালিফোর্নিয়ার লসএঞ্জেলেস ও সিলিকন ভ্যালিতেও আরও তিনটি সম্মেলন হবে।

দিনব্যাপী কর্মসূচিতে বক্তব্য দেন অর্থ মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ সচিব আব্দুর রউফ তালুকদার, বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের চেয়ারম্যান শিবলী রুবাইয়াত-উল ইসলাম, নিউইয়র্কে বাংলাদেশের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা, বাণিজ্য সচিব তপনকান্তি ঘোষ, বিডার নির্বাহী চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, বেপজার নির্বাহী চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল নজরুল ইসলাম প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে সালমান এফ রহমান বলেন, ‘শেখ হাসিনার বিচক্ষণ নেতৃত্বের সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশকে এখন আর কেউ হরতাল, অবরোধ, জ্বালাও-পোড়াও এবং দুর্ভিক্ষের দেশ মনে করে না।

উন্নয়ন আর সমৃদ্ধির রোল মডেলে পরিণত হয়েছে বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশ। উন্নয়ন আর সমৃদ্ধির এই অদম্য গতিকে ত্বরান্বিত করতে দরকার বেশি বিনিয়োগ।’

তিনি আরও বলেন, ‘ডিজিটাল বাংলাদেশের বদৌলতে দুর্নীতি অনেকাংশে কমেছে। বিশেষ করে টেন্ডারবাজি ও টেন্ডার সাবমিটের সময়ে গোলাগুলি, খুনা-খুনি-হানাহানি আর ঘুষ-দুর্নীতি ও দল প্রীতির ঢালাও যে অভিযোগ ছিল, তা এখন নেই বললেই চলে।

বিশেষ করে সরকারের উচ্চ পর্যায়ের আমলাদের মধ্যে দুর্নীতির মাত্রা একেবারেই কমে এসেছে। তবে এটা বলতে দ্বিধা নেই যে, গ্রাউন্ড লেবেলে এখনও ঘুষ-দুর্নীতি অব্যাহত রয়েছে।’

কক্সবাজারে বিশ্বমানের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের পরিকল্পনার পাশাপাশি মিরসরাইসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে হাইটেক পার্ক, শিল্পনগরী স্থাপনের কাজ চলছে। বিদেশি বিনিয়োগকারীদের এসব স্থানে বিনিয়োগের আহ্বান জানান তিনি।

দ্বিতীয় পর্বে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার ন্যাশনাল ইকনোমিক কাউন্সিলের পরিচালক এবং সাবেক প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিন্টনের অর্থমন্ত্রী হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট এমিরিটাস লরেন্স হেনরি সামারস। লরেন্স গত ১২ বছরে বাংলাদেশের অবিস্মরণীয় উন্নয়ন-অভিযাত্রার বিবরণ তুলে ধরেন।