আ. লীগ নেতার বাড়িতে ককটেল হামলা, বিএনপি-জামায়াতের ১১২ নেতাকর্মী আসামি

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৩৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৩৬:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৬, ২০১৮

বগুড়ার গাবতলীতে এক আওয়ামী লীগের নেতার বাড়িতে ককটেল হামলার ঘটনায় বিএনপি-জামায়াতের ১১২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

বুধবার রাতে গাবতলী থানায় ৬২ জনের নাম উল্লেখ করে মামলাটি দায়ের করেন কাগইল ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক শফি আহমেদ স্বপন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার রাতে খালেদা জিয়ার নামে স্লোগান দিয়ে দুর্বৃত্তরা আওয়ামী লীগ নেতা স্বপনের সুলতানপুরপাড়ার বাড়িতে হামলা চালায়। এতে ফ্রিজ, টিভিসহ প্রায় লাখ টাকা মূল্যের মালামাল পুড়ে যায়।

মামলার অন্যতম আসামিরা হলেন- গাবতলী উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান মোরশেদ মিল্টন, পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র সাইফুল ইসলাম, কাগইল ইউনিয়নের বিএনপি সমর্থিত বর্তমান চেয়ারম্যান আগা নিহাল বিন জলিল তপন প্রমুখ।

আসামিরা এ হামলায় জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন। তাদের দাবি, আগামী জাতীয় নির্বাচন থেকে বিএনপিকে দূরে রাখতেই এ মিথ্যা মামলা।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৪ সেপ্টেম্বর রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিএনপি ও জামায়াতের বিপুলসংখ্যক নেতাকর্মী ‘খালেদা জিয়ার ভয় নেই, রাজপথ ছাড়ি নাই, খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, মোরশেদ মিল্টনকে এমপি হিসেবে দেখতে চাই’ স্লোগান দিয়ে সুলতানপুরপাড়া গ্রামে আওয়ামী লীগ নেতা শফি আহমেদ স্বপনের বাড়িতে হানা দেয়।

তারা বেশ কয়েকটি ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘরে আগুন ধরে গেলে ফ্রিজ, টিভিসহ প্রায় লাখ টাকার মালামাল পুড়ে যায়।

এ সময় ঘরে কেউ না থাকায় প্রাণে বেঁচে যায়। পরে বুধবার রাতে আওয়ামী লীগ নেতা শফি আহমেদ স্বপন গাবতলী থানায় উপজেলা চেয়ারম্যান, পৌর মেয়রসহ বিএনপি ও জামায়াতের ১১২ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা করেন।

গাবতলী থানার ওসি খায়রুল বাশার জানান, আওয়ামী লীগ নেতা স্বপনের বাড়িতে ককটেল হামলা ও ক্ষয়ক্ষতির সত্যতা পাওয়া গেছে। মামলা রেকর্ড করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। আসামিরা আত্মগোপনে রয়েছে।