ইন্টারপোলের প্রধানকে আটকের কথা স্বীকার চীনের

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৫:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০১৮
ছবি: সংগৃহীত

গেল ২৫ সেপ্টেম্বর ইন্টারপোলের সদরদপ্তর ফ্রান্সের লিও শহর থেকে চীনের উদ্দেশ্যে যাত্রা করার পর থেকে নিখোঁজ ছিলেন মেং। ইন্টারপোল জানিয়েছে, তারা রোববারই প্রেসিডেন্ট মেং-এর কাছ থেকে পদত্যাগপত্র পেয়েছেন, যা তাৎক্ষণিক কার্যকর হবে।

ইন্টারপোলের প্রধান মেং হংওয়েকে আটকে রাখার কথা নিশ্চিত করেছে চীন। বেইজিং জানিয়েছে, অনির্দিষ্ট অবৈধ আচরণের অভিযোগে দেশটির দুর্নীতিবিরোধী সংস্থা তার বিরুদ্ধে তদন্ত করছে। খবর বিবিসির।

চীনে সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারীদের দুর্নীতি তদন্তকারী সংস্থা ন্যাশনাল সুপারভিশন কমিশন তাদের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মেং-র বিরুদ্ধে তদন্ত করা হচ্ছে।

এখন ইন্টারপোলের নিয়ম অনুযায়ী সংস্থাটি তাদের সিনিয়র ভাইস-প্রেসিডেন্ট দক্ষিণ কোরীয় কিম জং-ইয়াংকে ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্ট হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে। আগামী মাসে দুবাইয়ে সংস্থাটির সাধারণ অধিবেশনে মেং-র বাকি থাকা দুই বছর মেয়াদের জন্য নতুন একজন প্রেসিডেন্ট নিয়োগ দেয়া হবে।

সাম্প্রতিক মাসগুলোতে চীনে নিখোঁজ হওয়া হাইপ্রোফাইল ব্যক্তিদের তালিকায় সবশেষ যোগ হলেন ইন্টারপোল প্রধান মেং। এর আগে গেল জুলাইয়ে নিখোঁজ হওয়া অভিনেত্রী ফ্যান বিংবিং কর ফাঁকি ও অন্যান্য অভিযোগের জন্য চলতি সপ্তাহে জনসম্মুখে হাজির হয়ে ক্ষমা চান এবং ৮৮৩ মিলিয়ন ইউয়ান জরিমানা দেন।

উল্লেখ্য, ইন্টারপোলের প্রধান হওয়ার আগে চীনের জননিরাপত্তা বিষয়ক সাবেক উপমন্ত্রী ছিলেন মেং। আগামী ২০২০ সাল পর্যন্ত তার ইন্টারপোলের প্রধানের দায়িত্ব পালনের কথা ছিল।