এই বিষয়টি নিয়ে আমি কেন বারবার কথা বলবো?: কাদের

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:২৪ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯ | আপডেট: ১২:২৪:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। ফাইল ছবি

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বাংলাদেশ ছাত্রলীগ সম্পর্কে প্রশ্ন শুনেই অগ্নিশর্মা হয়ে উঠলেন। বললেন, ‘ছাত্রলীগ নিয়ে আমি একটা কথাও বলবো না।

প্রধানমন্ত্রী নিজেই এই বিষয়টা দেখছেন, দায়িত্বপ্রাপ্তদের মাধ্যমে তিনি তার নির্দেশনা দিচ্ছেন। কাজেই এই বিষয়টি নিয়ে আমি কেন বারবার কথা বলবো?

বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ে দলটির সম্পাদকমণ্ডলীর বৈঠক শেষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল আলম, অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক, আব্দুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, একেএম এনামুল হক শামীম, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দফতর সম্পাদক আবদুস সোবহান গোলাপ, সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল,

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আব্দুস সবুর, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, উপ দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, কার্যনির্বাহী সদস্য, আমিরুল আলম মিলন, ইকবাল হোসেন অপু, এবিএম রিয়াজুল কবির কাওছারসহ অনেকে।

প্রশ্নকর্তা ছাত্রলীগ প্রসঙ্গ তুলে প্রশ্ন করতে গেলে ছাত্রলীগের নাম শোনার সাথে প্রশ্নকারী সাংবাদিককে থামিয়ে দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘দুজনকেই অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। ডিসিপ্লিনারি অ্যাকশন নেওয়া হয়েছে। এই আমলে অপকর্ম হয় না হয়নি, এটা আমরা বলি না।

কিন্তু অপকর্ম হলেই শাস্তির ব্যবস্থা আছে। এটা অন্য দলে নেই, আওয়ামী লীগের এই কালচার আছে। এখানে কেউ অপকর্ম করলে অন্যায় করলে, দুর্নীতি করলে, শাস্তির ব্যবস্থা আছে। বিএনপিতে শাস্তির ব্যবস্থা নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘দুদককে সম্পূর্ণ স্বাধীনতা দেওয়া হয়েছে। আওয়ামী লীগের কেউ অপকর্ম করলে, দুর্নীতি করলে কেউ পার পাচ্ছে না। আমাদের অনেক এমপির বিরুদ্ধে দুদক ব্যবস্থা নিয়েছে, চার্জশিট পর্যন্ত করা হয়েছে। অনেকে জামিনের জন্য আমাদেরকে কাছে ঘোরাঘুরি করেছে, যেন অ্যাটর্নি জেনারেলকে অনুরোধ করা হয়। কিন্তু আমরা সরাসরি না করে দিয়েছি।’

আওয়ামী লীগের কাউন্সিলের আগে ঢাকার দুই সিটি করপোরেশনের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন হবে কি হবে না, এটা সম্পূর্ণ নির্বাচন কমিশনের বিষয়। অন্যদিকে সম্মেলনের কাজ দলীয়ভাবে চলবে। সিটি করপোরেশনের নির্বাচনের সঙ্গে আমাদের জাতীয় কাউন্সিলের সম্পর্ক নেই।’

তিনি বলেন, আমি যতটা জানি, ডিসেম্বরে সিটি করপোরেশনের নির্বাচন নয়, নির্বাচনের শিডিউল ঘোষণা করার কথা আছে। ডিসেম্বরে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা হতে পারে। সেটা নির্বাচন কমিশন দেখবে।