একটি হুইল চেয়ারের আকুতি পিতৃহীন প্রতিবন্ধী শিশু জাহিদের

বাদশাহ সৈকত বাদশাহ সৈকত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬:৪৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯ | আপডেট: ৮:০৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

পিতৃহারা জিসাদ হাসান জাহিদ (১২) জন্ম থেকেই প্রতিবন্ধি। পায়ের নিচের অংশ চিকন ও বাঁকা হওয়ায় হামাগুড়ি দিয়ে হাটতে হয় তাকে। বিধবা মা জাহানারা বেগম বাড়ির সামনে ঘর ভাড়া নিয়ে মুদি দোকান করে জীবিকা নির্বাহ করেন। দুই মেয়েকে বিয়ে দিয়েছেন।

প্রতিবন্ধি ছেলেকে নিয়েই এখন তার সংসার। ছেলেকে ভর্তি করে দিয়েছেন ছোঁয়া রেসিডেন্সিয়াল নামের একটি বেসরকারী স্কুলে। প্রতিবন্ধি জাহিদ এখন পঞ্চম শ্রেণিতে পড়ে। ছবি তুলতে চাইতেই হাস্যোজ্জল মুখে প্রশ্ন করেন, ছবি তুলে কি করবেন। আমাকে একটা হুইল চেয়ার দিবেন? আমি গাড়িতে চড়ে স্কুলে যাব। আমার স্কুলে যেতে খুব কষ্ট হয়। মুহুর্তেই পরিবেশটা অন্যরকম হয়ে গেল।

আমরা কি পারিনা জাহিদের মতো একজন প্রতিবন্ধির জন্য হুইল চেয়ারের ব্যবস্থা করতে। তার আগামী ভবিষ্যত গড়ে তোলার জন্য লেখাপড়ার দায়িত্ব নিতে? বাবা মিজানুর রহমান ৫ বছর আগে মারা গেছে। বাড়ি উপজেলার দূর্গাপুর ইউনিয়নের ভেলুর খামার গ্রামে।

মা জাহানারা বেগম ছেলের জন্য একটি হুইল চেয়ারের আবদার করেছেন। কেউ তার প্রতিবন্ধী ছেলের লেখাপড়ার খরচ দিলে ভালো হতো বলে জানান তিনি। কেন না ছেলেকে পড়াতে চান তিনি।

যোগাযোগ: ০১৭৭৩-৬৬৮৩৩৬ (জাহিদের মা),
সাহায্য পাঠানোর ঠিকানা: ০১৭১৬-৩৩৪০৬১ (বিকাশ)।