এবার চীনের কাছে ইরানের তেল বিক্রিও কঠিন করতে চাইছে যুক্তরাষ্ট্র

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:১৫ অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০২১ | আপডেট: ১২:১৫:অপরাহ্ণ, জুলাই ২১, ২০২১
মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইস

ইরানের বিরুদ্ধে আরোপিত সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা এখনও বলবৎ রয়েছে এবং কোনো নিষেধাজ্ঞাই শিথিল করা হয়নি বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

২০১৫ সালের পরমাণু সমঝোতা পুনরুজ্জীবিত করার লক্ষ্যে ভিয়েনা আলোচনা ব্যর্থ হলে চীনের কাছে তেহরানের তেল বিক্রি কঠিন করার লক্ষ্যে ওয়াশিংটন তার তৎপরতা জোরদার করবে বলে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের খবর বের হওয়ার পর আমেরিকার পক্ষ থেকে এ বক্তব্য এলো।

এ বিষয়ের সঙ্গে পরিচিত মার্কিন ব্যক্তি এবং কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ওয়াল স্ট্রিট জার্নাল গতকাল সোমবার জানিয়েছে, মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন প্রশাসন চীনের কাছে প্রতিদিন ইরানের দশ লাখ ব্যারেল অপরিশোধিত তেল বিক্রিতে সহায়তা করা শিপিং নেটওয়ার্কের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার বিষয়ে চিন্তাভাবনা করছে।

আইনি পদক্ষেপ বা নতুন নামে আমেরিকার এ নতুন পরিকল্পনা ইতিমধ্যে ইরানের তেল এবং শিপিং সেক্টরের ওপর নিষেধাজ্ঞার বল প্রয়োগের নীতি সঙ্গে অন্তর্ভুক্তি করা হবে বলে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

একজন মার্কিন কর্মকর্তা জানান, ইরানের অর্থনীতির ওপর নিষেধাজ্ঞা দেয়ার ব্যাপারে আর বেশি কিছু বাকি নেই। ‘চীনের কাছে ইরানের তেল বিক্রি পুরষ্কার’ বলেও জানান তিনি।

এদিকে, তেহরানের কাছ থেকে চীনের তেল ক্রয় কঠিন করার লক্ষ্যে ওয়াশিংটন তার তৎপরতা জোরদার করছে বলে ওয়াল স্ট্রিট জার্নালে যে খবর বের হয়েছে সে ব্যাপারে গতকাল (সোমবার) আরো পরে মার্কিন পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র নেড প্রাইসকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, হ্যাঁ ইরানের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা এবং নিষেধাজ্ঞা জোরদার করার খবর সঠিক। কূটনৈতিক আলোচনার মাধ্যমে কোনো নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়া পর্যন্ত সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা তেহরানের ওপর বলবৎ থাকবে বলেও জানান মুখপাত্র প্রাইস। এছাড়া ইরানের ওপর আরোপিত কোনো নিষেধাজ্ঞা শিথিল করা হয় নি বলেও সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে জানান তিনি।