এবার ‘সংরক্ষিত এমপি’ হতে চান র‌্যাব কর্মকর্তার স্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৫১ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৫১:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৯

এবার সংরক্ষিত মহিলা আসন সাতক্ষীরা (৩১২) থেকে সংসদ সদস্যের মনোনয়নের জন্য নিজের প্রার্থিতা ঘোষণা করেছেন চৌধুরী নুরজাহার মঞ্জুর।

তিনি সাতক্ষীরার সাবেক পুলিশ সুপার চৌধুরী মঞ্জুরুল কবিরের স্ত্রী। বর্তমানে চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক হিসেবে কর্মরত।

সাতক্ষীরার সাবেক এই পুলিশ সুপারের স্ত্রীর প্রার্থিতা ঘোষণার পর থেকে সর্বত্র চলছে আলোচনা। শহর থেকে শুরু করে প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের চায়ের দোকানসহ রাজনৈতিক মহলে চল এই আলোচনা। সাধারণ মানুষ চৌধুরী নুরজাহান মঞ্জুরকে সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হিসেবে পেতে চায়।

গতকার মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাতক্ষীরার তালা সদরের মাঝিয়াড়া বাজারে চায়ের দোকানে ভিড়। আলোচনা চলছে মহিলা আসনের এই প্রার্থীকে নিয়ে।

এরই মধ্যে জাহিরুল ইসলাম নামের একজন বলেন, ২০১৩ সালে যখন তীব্র আন্দোলনে মানুষ বাড়ি থেকে বের হতে ভয় পেতো তখন এই পুলিশ সুপারের কারণে মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পেরেছেন। তার স্ত্রী বিভিন্ন সময় সাধারণ মানুষদের সঙ্গে মিশে সামাজিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করেছেন। তিনি সাতক্ষীরার সংরক্ষিত মহিলা আসনে সংসদ সদস্য হলে সাধারণ মানুষ উপকৃত হবে।

নিজের অবস্থান তুলে ধরে র‌্যাব কর্মকর্তার স্ত্রী চৌধুরী নুরজাহান মঞ্জুর বলেন, সংরক্ষিত আসনে আমাকে মনোনয়ন দিলে সাতক্ষীরার মানুষের আর্থসামাজিক উন্নয়ন, সাংস্কৃতিক উন্নয়ন ও জীবনমান উন্নয়নে কাজ করব। নারীদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা নিশ্চিত, রাজনৈতিক ও সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে আমি সবার উন্নয়নে কাজ করব।

তিনি আরও বলেন, স্বামীর ১৮ বছরের পুলিশের চাকরি জীবনে সবসময় বিভিন্ন স্থানে থাকতে হয়েছে। আমার সাতক্ষীরার ভোটার। দুই সন্তানের স্কুলজীবন সাতক্ষীরাতেই। সাতক্ষীরার মানুষের অকৃত্রিম ভালোবাসা পেয়েছি আমি; সেজন্য সাতক্ষীরার মানুষের সঙ্গে বাকি জীবন কাটাতে চাই।

নিজের স্ত্রীর প্রার্থিতা ঘোষণার বিষয়ে র‌্যাব-৪-এর অধিনায়ক চৌধুরী মঞ্জুরুল কবির বলেন, সাতক্ষীরা ছেড়ে আসার পর সাতক্ষীরার মানুষ বিভিন্ন সময় তাদের জন্য কাজ করার অনুরোধ করেছেন। একটা প্ল্যাটফর্ম না হলে কাজের সুযোগ সৃষ্টি হয় না। সাতক্ষীরার মানুষও চায় আমার স্ত্রী সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি হোক, আমি তার সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানাই।