এবার সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসার যন্ত্রপাতি না কিনেই অর্থ লুটপাট!

প্রকাশিত: ৭:০৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | আপডেট: ৭:০৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

তিতাস চক্রবর্তী, খুলনা প্রতিনিধি: সাতক্ষীরা সদর হাসপাতাল ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা যন্ত্রপাতি ক্রয়ের নামে সরকারি অর্থ লোপাটের মামলায় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মেসার্স বেঙ্গল সায়েন্টিফিক অ্যান্ড সার্জিক্যাল কোম্পানির কর্ণধার জাহেরউদ্দিন সরকারসহ ৪ ঠিকাদারের জামিন আবেদন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত।

সোমবার খুলনা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল আদালতে আসামিরা হাজির হয়ে জামিনের আবেদন করলে বিচারক শহীদুল ইসলাম জামিন না মঞ্জুর করে তাদের কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন।

একই সঙ্গে মামলার নথিপত্র সাতক্ষীরা জেলা জজ আদালতে প্রেরণের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আইনজীবী পিপি অ্যাডভোকেট খন্দকার মজিবর রহমান এ তথ্য জানান।

জামিন না-মঞ্জুর হওয়া অন্যরা হলেন, ঠিকাদার জাহের উদ্দিনের বাবা হাজী আব্দুর সাত্তার সরকার, ভগ্নিপতি আসাদুর রহমান ও নিয়োগকৃত প্রতিনিধি কাজী আবু বকর সিদ্দিক।

আদালত সূত্র জানাায়, আসামিরা পরস্পর যোগসাজসে চিকিৎসা যন্ত্রপাতি ক্রয় না করে ২০১৭-১৮ অর্থবছরে ১৬ কোটি ৬১ লাখ ৩১ হাজার ৮২৭ টাকা লোপাট করেন।

এ ঘটনায় গত ৯ জুলাই দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫ (২) ধারায় মামলা করে দুদক। এ মামলায় সাতক্ষীরার সাবেক সিভিল সার্জন ডা. তওহীদুর রহমানসহ মোট ৯ জনকে আসামি করা হয়েছে। মামলায় বিবাদী পক্ষের আইনজীবী ছিলেন দুদকের সাবেক পিপি অ্যাডভোকেট এমএম মুজিবুর রহমান।