এমপিওভুক্ত হচ্ছে ৫ শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

প্রকাশিত: ১১:২৯ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ১১:২৯:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ৮, ২০১৮

বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির জন্য সাড়ে ৬ হাজার আবেদনের যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়া শুরু হতে যাচ্ছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, আগামী সপ্তাহেই শুরু হতে পারে যোগ্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা তৈরির এই প্রক্রিয়া। এরপর তা শিক্ষামন্ত্রীর কাছে প্রেরণ করা হবে।

জানা গেছে, চলতি অর্থবছরে স্কুল-কলেজ এমপিওভুক্তির জন্য ৪৩২ কোটি দুই লাখ ৭৩ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। এ হিসাবে বরাদ্দকৃত অর্থে পাঁচ শতাধিক প্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা সম্ভব হবে।

যদিও গত বছর মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদফতর (মাউশি) সারাদেশের এমপিওবিহীন সাত হাজার ১৪২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করতে বার্ষিক দুই হাজার ১৮৪ কোটি ২৭ লাখ ৫২ হাজার ২৫০ টাকা চাহিদা পাঠিয়েছিল মন্ত্রণালয়ে।

সূত্র জানায়, বিপুল সংখ্যক আবেদনের মধ্যে থেকে সংসদীয় আসনপ্রতি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করার নীতিগত সিদ্ধান্ত নিয়েছে মন্ত্রণালয়।

এ বিষয়ে এমপিওভুক্তি যাচাই-বাছাই কমিটির আহ্বায়ক ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (বেসরকারি) মো. জাবেদ আহমেদ বলেন, অনলাইন আবেদন কার্যক্রম শেষ হয়েছে। যাচাই-বাছাই শেষ হলে যোগ্য প্রতিষ্ঠানের তালিকা শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে জমা দেয়া হবে। সেই তালিকা থেকে প্রতিবছর যে পরিমাণে অর্থ বরাদ্দ দেয়া হবে সেই অনুপাতে নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তি করা হবে।

প্রসঙ্গত, ২০১০ সালে এক হাজার ৬২৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্ত করা হয়। এরপর থেকে এ কার্যক্রম সাময়িকভাবে বন্ধ ছিল। এমপিওভুক্তি দাবিতে সম্প্রতি অনেকবার অনশনসহ নান কর্মসূচি পালন করেছেন শিক্ষকরা। তাদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতেই সরকার নতুন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান এমপিওভুক্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছে।