ঠান্ডা পানি খান? শরীরের কী মারাত্মক ক্ষতি করছেন জানেন তো?

প্রকাশিত: ৭:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৩, ২০১৮ | আপডেট: ৪:৫২:অপরাহ্ণ, জুন ২৫, ২০১৯

বাইরে থেকে গরমে ঘেমে নেয়ে বিদ্ধস্ত হয়ে বাড়ি ফিরেই ফ্রিজ খুলে ফেলা। আর তার পরই ফ্রিজ থেকে ঠান্ডা পানি বের করে ঢক ঢক করে… বেশির ভাগ দিন এমনটাই করেন বুঝি? জানেন কি, এ ভাবে ঠান্ডা পানি খেলে শরীরে মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে? আসুন এ বিষয়ে কিছু জরুরি তথ্য জেনে নেওয়া যাক।

অতিরিক্ত ঠান্ডা পানি খেলে তার প্রভাবে রক্তনালী সঙ্কুচিত হয়ে পড়ে। শুধু তাই নয়, হজমের সময় যে সমস্ত পুষ্টিগুণ আমাদের দেহে মিশতে থাকে, তাও বাধাপ্রাপ্ত হয়। ফলে হজমের মারাত্মক সমস্যা হতে পারে।

বিশেষজ্ঞদের মতে, খাওয়ার পরে ঠান্ডা পানি খাওয়া একেবারেই এড়িয়ে চলা উচিত। কারণ, এর ফলে শ্বাসনালীতে শ্লেষ্মার অতিরিক্ত আস্তরণ তৈরি হয় যা থেকে সংক্রমণের সম্ভাবনা অনেকটাই বেড়ে যায়।

বিশেষজ্ঞদের মতে, অতিরিক্ত ঠান্ডা পানি খেলে তার মারাত্মক প্রভাব পড়ে দাঁতের ভেগাস নার্ভের উপর। এই ভেগাস স্নায়ু হল আমাদের স্নায়ুতন্ত্রের অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি অংশ। বেশি ঠান্ডা পানি খেলে ভেগাস স্নায়ু উদ্দীপিত হয়ে ওঠে। যার ফলে হৃদগতি অনেকটাই কমে যেতে পারে।

শরীরচর্চা বা ওয়ার্কআউটের পর ঠান্ডা পানি একেবারেই খাওয়া উচিত নয়। কারণ, ওয়ার্কআউটের পর দেহের তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেকটাই বেড়ে যায়। এই সময় ঠান্ডা পানি খেলে তা দেহের তাপমাত্রার সঙ্গে বাইরের পরিবেশের তাপমাত্রার সামঞ্জস্য রাখতে পারে না। ফলে হজমের সমস্যা দেখা দিতে পারে। বিশেষজ্ঞদের মতে, ওয়ার্কআউটের পর যদি সামান্য উষ্ণ পানি খাওয়া যায়, তবে উপকার পেতে পারেন।

সুতরাং, আজ থেকেই বদলে ফেলুন এ ভাবে ঠান্ডা পানি খাওয়ার অভ্যাস। না হলে একাধিক স্বাস্থ্য সমস্যা একে একে বাসা বাঁধতে পারে আপনার শরীরে।