টেকনাফের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরে গুলির শব্দ

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৫৭ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ১২:০৪:পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯

কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ পাওয়া গেছে কক্সবাজারের টেকনাফের রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবিরের পাশে পাহাড়ে। এতে আতঙ্ক বিরাজ করছে রোহিঙ্গাদের মাঝে। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

উপজেলার হ্নীলা ইউনিয়নের জাদিমোরা শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরের পাশে শনিবার (১৪ আগস্ট) রাত পৌনে ৮টার দিকে পাহাড়ে এ গুলির ঘটনা ঘটে। টেকনাফ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক(তদন্ত) এবিএমএস দোহা এ তথ্যটি রাতেই নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শালবাগান রোহিঙ্গা শিবির সংলগ্ন পাহাড়ে কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ শুনে স্থানীয় রোহিঙ্গারা পুলিশে খবর দেয়। এরপর নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ উপপরিদর্শক (এসআই)মোহাম্মদ মনিরকে ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মোহাম্মদ মনির বলেন, ‘ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসেছি। গুলিতে কেউ আহত হয়েছে কী না খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।’

শিবিরের রোহিঙ্গারা জানান, উপজেলার হ্নীলার রঙ্গিখালী, আলীখালী, লেদা-মোচনী ও জাদিমোরা এলাকার চিহ্নিত কিছু ইয়াবা চোরাকারবারী এবং সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ ইয়াবা চোরাচালান নিয়ন্ত্রণ, ছিনতাই, অবৈধ অস্ত্রের মজুদ, অপহরণসহ বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম চালিয়ে আসছে।

সশস্ত্র সন্ত্রাসী গ্রুপ রোহিঙ্গা শিবির থেকে লোকজনকে অপহরণ করে নিয়ে মুক্তিপণ আদায় করে আসছিলেন।ওই পাহাড়ে একাধিক সন্ত্রাসী গ্রুপের অবস্থান রয়েছে। তাদের মধ্যে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রায় সময় গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

শালবাগান রোহিঙ্গা শিবিরের দলনেতা(মাঝি)সৈয়দুল আমিন বলেন, রাতে রোহিঙ্গা শিবিরের পশ্চিমে পাহাড়ে কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ শুনেছি। বিষয়টি পুলিশসহ শিবির কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। তবে কার সঙ্গে গোলাগুলি হয়েছে তা জানতে পারিনি। ধারণা করা হচ্ছে, সশস্ত্র গ্রুপের কারণে সাধারণ রোহিঙ্গারা আতঙ্কিত রয়েছে।