কাশ্মীরে ভারতের অত্যাচার সীমা ছাড়িয়ে গেছে: পাক প্রধানমন্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:১১ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০১৯ | আপডেট: ৯:১১:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১০, ২০১৯
সংগৃহীত ছবি

তুর্কী টিভি চ্যানেল টিআরটিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারত সরকার মুসলমানদের ওপর নির্যাতন বাড়িয়ে দিয়েছে দাবি করে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান বলেছেন, কাশ্মীরে ভারতের অত্যাচার সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

‘তারা ছোট ছোট শিশুদের গুলির নিশানা বানাচ্ছে। শুধু ২০১৮ সালেই ৫০০ কাশ্মীরিকে ভারতীয় সেনারা গুলি করে হত্যা করেছে।’

২২ মিনিটের ওই সাক্ষাৎকারে আমেরিকা-পাকিস্তান সম্পর্ক, আফগান ও পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ নানান বিষয়েও বিভিন্ন কথা বলেন।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতের বিষয়ে আরও বলেন, প্রতিবেশী দেশ হিসেবে আমরা সবসময় ভারতের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে চাই। কিন্তু তারা সর্বদা বিষয়টি এড়িয়ে চলে।

এর সঙ্গে ভারতের আগামী নির্বাচনের সম্পর্ক রয়েছে দাবি করে তিনি আরও বলেন, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে আমি বলেছি, পারস্পরিক সম্পর্ক উন্নোয়নের লক্ষ্যে আপনি এককদম অগ্রসর হলে আমরা দু’কদম আগাতে পারবো। কিন্তু মোদী আগামী নির্বাচনে সুবিধা পাওয়ার জন্য ‘পাকিস্তান বিরোধিতাকে’ অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছেন।

চীনে সংখ্যালঘু উইঘুর মুসলিম নির্যাতন ও নিপীড়নের ব্যাপারে জানতে চাইলে ইমরান খান বলেন, ‘উইঘুরে সংখ্যলঘু মুসলিমদের সঙ্গে চীন সরকার কী ব্যবহার করছেন, তা আমি বিস্তারিত জানি না।তবে এতটুকু অবশ্যই বলবো যে,পাকিস্তানের দুঃসময়ে সবসময় চীনকে আমরা বন্ধু হিসেবে পেয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘চীন আমাদের বিভিন্ন বিষয়েই সহায়তা করে, তবে তাদের অভ্যন্তরীণ ব্যাপারে আমরা তেমন কিছু জানি না। কারণ চীনের রাষ্ট্রীয় নীতি হল, তাদের তাদের যাবতীয় বিষয়ে গোপনীয়তা রক্ষা করে।’