‘কিছু টাকা দিয়ে দিলেই তো ঝামেলা শেষ’

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৪ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৩৪:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮

ময়মনসিংহের সদর উপজেলার সাহেব কাচারী বাজারে এইচএসবি ইটের ভাটায় ড্রেনের ময়লা পরিষ্কার করতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে এক শ্রমিক নিহত হয়েছেন। নিহত হাসিম উদ্দিন (৩২) রাঘবপুর পূর্বপাড়া গ্রামের আবুল কালামের ছেলে। এ ঘটনায় সোহেল মিয়া (২৫) নামে অপর একজন আহত হয়েছেন। তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাটা কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই হাসিম উদ্দিনের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ নিহতের পরিবার ও স্বজনদের। ইট ভাটার মালিক ছায়দুল ইসলাম বলেন, ‘হাসিমের মৃত্যু তার অসাবধানতার কারণেই হয়েছে। এখানে আমাদের কোন দোষ নেই। হাসিমের বড় ভাই গত বছর সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেলে ৫০ হাজার টাকা দিয়ে মিমাংসা হয়। আমিও তাদের কিছু টাকা দিয়ে দেব তাহলেই ঝামেলা শেষ হয়ে যাবে।’

নিহতের চাচা জহিরুল ইসলাম বলেন, সাত বছর ধরে হাসিম এইচবিএস ইট ভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন। সোমবার বিকালে ভাটার কর্তৃপক্ষ হাসিমকে ইট ভাটার মধ্যে ড্রেনের ময়লা পরিষ্কার করার জন্য চাপ দেয়। পরে হাসিম ড্রেনে নামলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গুরুতর আহত হয়। তাকে হাসপাতালে নিতে অনেক সময় লাগায় তার মৃত্যু হয়েছে। হাসিম ড্রেন পরিষ্কার করার অনেক আগে থেকেই ড্রেনের পানির নিচে মোটর সচল ছিল জেনেও তাকে সেখানে নামতে বাধ্য করে বলে অভিযোগ তার।

স্থানীয় আক্রাম হোসেন বলেন, পানির নিচে মোটর আছে এবং সে মোটরের লাইন ছেড়া ছিল কর্তৃপক্ষ সেটার জানার পরেও হাসিমকে ড্রেন পরিষ্কার করতে বলে আর সে কারণেই বিদ্যুৎ পৃষ্ঠ হয়ে তার মৃত্যু হয়। নানা অনিয়মের মধ্যে ইট ভাটাটি চললেও প্রশাসন কোন পদক্ষেপ নেয়নি বলে অভিযোগ তার।

কোতোয়ালী মডেল থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম বলেন, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। নিহতের পরিবার অভিযোগ করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।