কিশোরগঞ্জে আওয়ামী লীগের দু’গ্রুপের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া, গুলিবিদ্ধ ৭

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:১০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০১৮ | আপডেট: ৬:১০:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৮, ২০১৮

কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে আওয়ামী লীগ দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী দু’নেতার সমর্থকদের শোডাউনে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে গোলাগুলি ও ধাওয়া- পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ সময় অন্তত ৭ জন গুলিবিদ্ধ হয়েছে বলে জানা গেছে।

আহতদের প্রথমে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং পরে কিশোরগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল ও বাজিতপুরের ভাগলপুর জহুরুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে। আহতরা হলেন, কদিয়াদী পৌরসভার ১নং প্যানেল মেয়র রুহুল আমিন শাকিল (৩৫), অনিক (২০) বোরহান (৩০), প্রিথম (৩০), কাউসার (৩২) , ইউসুফ (৩০) ও বাচ্চু মিয়া (৪৫)।

সোমবার দুপুরে উপজেলার চারিপাড়া গ্রামে কিশোরগঞ্জ-ভৈরব মহাসড়ক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, সোমবার বিকাল ৩টায় কিশোরগঞ্জ গুরুদয়াল সরকারি কলেজ মাঠে আয়োজিত রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগ বর্তমান সাংসদ অ্যাডভোকেট সোহরাব উদ্দিন এবং আওয়ামীলীগ নেতা ড. জায়েদন বিন হাবিবুল্লাহর কর্মী সমর্থকরা চাড়িপাড়া বাজার এলাকায় অস্ত্র ও লাঠি হাতে মোটর সাইকেল মহড়া দেন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের সূত্র মতে, দু’পক্ষের কর্মী-সমর্থকরা লাঠিসোটা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে প্রভাব এবং আধিপত্য বিস্তারে শক্তি প্রদর্শনের মহড়া চালানোর এক পর্যায়ে ড. জায়েদ ও এমপি সোহরাবের গানম্যান প্রথমে ফায়ার ওপেন করে।

সূত্র মতে, ড. জায়েদের গুলিতে একজন এবং এমপি’র গানম্যানের গুলিতে পাঁচজন গুলিবিদ্ধ হয়। এ ঘটনায় দু’পক্ষের মধ্যে প্রায় ঘন্টাখানেক ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। আর এ সময় নিরব দর্শকের ভূমিকায় দাঁড়িয়ে ছিলেন পুলিশ সদস্য।

এ ব্যাপারে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে, কটিয়াদী মডেল থানার ওসি জাকির রাব্বানী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।