‘খালেদার’ কথা বলতে বারবার ভুলে যাই

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৬ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৩৭:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮
ছবিঃ সংগৃহিত

টিবিটি রাজনীতিঃ জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ড. কামাল হোসেন বলেছেন, সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে জাতীয় সংসদ নির্বাচন দিতে হবে। বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী দলের নেতা হিসেবে অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য যে দাবিগুলো করেছিলেন, আমাদের দাবিও তাই।

আজ বৃহস্পতিবার বিকেলে সুপ্রীমকোর্ট মিলনায়তনে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বিশিষ্ট এই আইনজীবী এসব কথা বলেন।
তার বক্তৃতার সময় বিএনপির কর্মীরা কয়েক দফা বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে বক্তব্য দেওয়ার আহ্বান জানান।

এসময় ড. কামাল হোসেন বলেন, ‘খালেদার বিষয় বলতে বারবার ভুলে যাই। আপনাদের দাবির সঙ্গে আমিও একমত।’ তিনি এ বিষয়ে আর কোনো বক্তব্য দেননি।

এসময় ব্যারিস্টার মঈনুল হোসেনের গ্রেফতারের নিন্দা জানান তিনি। আইনমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, সরকারে বসে যদি আইন ভুলে যান, তাহলে আপনি সংবিধান পড়ুন, আইনের বই পড়ুন। আপনি ভালো করে জানেন মানহানির মামলা জামিনযোগ্য অপরাধ, তারপরও ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে কেন কারাগারে নেয়া হলো? প্রশ্ন রাখেন তিনি।

সিলেটে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের সমাবেশকে কেন্দ্র করে নেতাকর্মীদের গ্রেফতারের সমালোচনা করে আইনমন্ত্রীর উদ্দেশে ড. কামাল বলেন, তিনি যে হোটেলে ছিলেন তার সামনে থেকে এদের ধরে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এই যে ঘন ঘন আটক, মন্ত্রী হলে কি ন্যূনতম আইনও ভুলে যেতে হবে? এ সময় যাদের আটক করা হয়েছে, তাদের বিষয়ে আইনমন্ত্রীকে সংসদে ব্যাখ্যা দেওয়ার দাবি জানান তিনি।