গোলাপগঞ্জে পিকাপ-টেম্পু মুখোমুখী সংঘর্ষে খাদে

জাহেদুর রহমান জাহেদ জাহেদুর রহমান জাহেদ

গোলাপগঞ্জ (সিলেট) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৬:৪১ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯ | আপডেট: ৬:৪১:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

গোলাপগঞ্জের হেতিমগঞ্জে পিকআপ-টেম্পু মুখোমুখী সংঘর্ষে আশঙ্কাজনক অবস্থায় একজনকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (বেলা ২টায় সিলেট-জকিগঞ্জ সড়কের খায়স্থগ্রাস- নাসাগঞ্জ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তাৎক্ষণিক স্থানীয়রা টেম্পু চালককে আশংকাজনক অবস্থায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এদিকে ঘটনার পর পিকআপ চালক ও হেলপার পালিয়ে গিয়েছে। আহত টেম্পু চালক আমুড়া ইউনিয়নের সুন্দিশাইল এলাকার অধিবাসী সুমন আহমদ (২২)।

প্রতক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোলাপগঞ্জ থেকে ছেড়ে আসা হেতিমগঞ্জগ্রামী টেম্পু কায়স্থগ্রাম যাওয়া মাত্র বিপরীত দিক থেকে আসা পিকআপ ওভারটেক করতে গিয়ে টেম্পুকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে দু’টি গাড়ী দুমড়ে-মুচড়ে পাশর্^বর্তী খাদে পড়ে যায়।

এ সময় স্থানীয়রা এগিয়ে আসলেও পিকআপ চালক হেলপার পালিয়ে যায়। অপরদিকে টেম্পু চালক সুমনকে উদ্ধার করে সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন।

এ ব্যপারে স্কোয়ার কোম্পানীর গোলাপগঞ্জ এজেন্ট মশব আলী জানান, স্কোয়ার কোম্পানীর পন্যবাহী টেম্পু রুচি (প্যাকেট) চাল, রুচি চানাচুর, রুচি চিপস, মরিচ, হলুদ, ধনিয়া নিয়ে হেতিমগঞ্জে বিভিন্ন দোকানে ডেলিভারী দিতে যান। বিপরীত দিক থেকে আসা পিকআপ বেপরোয়া ভাবে এসে ট্যাম্পুকে সামন দিক দিয়ে সংগর্ষ করে।

তখন ট্যাম্পু নিয়ন্ত্রন হারিয়ে সড়কের পাশে খাঁদে পড়ে যায় এতে আমার প্রায় লক্ষাধীক টাকার মালামাল পানিতে ডুবে নষ্ট হয়ে গেছে। এ ব্যাপারে গোলাপগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মিজানুর রহমান ঘঠনার সত্যতা নিশ্চিত করেন।