চট্টগ্রামে পৌছেছে আরো ১ লাখ ৮৫ হাজার ডোজ টিকা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:০৩ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১ | আপডেট: ১:০৩:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

চট্টগ্রামে পৌছেছে আরো ১ লাখ ৮৫ হাজার ২০০ ডোজ টিকা। তার মধ্যে ১ লাখ ৬ হাজার ৮শ ডোজ যুক্তরাষ্ট্রের তৈরি মডার্না এবং ৭৮ হাজার ৪শ ডোজ চীনের তৈরি সিনোফার্মের টিকা।

বুধবার সকাল ৭টার দিকে এসব টিকা চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছায়। চট্টগ্রামে করোনার টিকা ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা আনুষ্ঠানিকভাবে এ টিকার চালান গ্রহণ করেন।

সিভিল সার্জন ডা. ফজলে রাব্বি বলেন, চট্টগ্রামে করোনার আরো এক দফা টিকার চালান এসেছে। টিকাগুলো ইপিআই স্টোরে সংরক্ষণ করে রাখা হয়েছে। সরকারি নির্দেশনা পেলে দ্রুত সময়ের মধ্যে বিভিন্ন উপজেলা এবং মহানগরের বিভিন্ন কেন্দ্রে পাঠানো হবে।

এর আগে প্রথম দফায় (১৮ জুন) সিনোফার্মের তৈরি ৯১ হাজার ২০০ ডোজ চীনা টিকা পেয়েছে চট্টগ্রাম। দ্বিতীয় দফায় (১১ জুলাই) আসে ৭৮ হাজার ৪০০ ডোজ।

এবার তৃতীয় চালানে আরো ৭৮ হাজার ৪০০ ডোজ চীনা টিকা এসেছে চট্টগ্রামে। গত ১১ জুলাই চীনা টিকার ২য় চালানের সাথে মর্ডানার ১ লাখ ৫ হাজার ৬০০ ডোজ টিকাও পেয়েছে চট্টগ্রাম।

প্রসঙ্গত, এর আগে দুই দফায় সবমিলিয়ে প্রায় ৮ লাখ ডোজ (অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার) টিকা পায় চট্টগ্রাম। ৭ ফেব্রুয়ারি এই টিকার প্রথম ডোজ টিকাদান উদ্বোধনের পর গত ৮ এপ্রিল থেকে দ্বিতীয় ডোজ প্রদান শুরু হয় চট্টগ্রামে।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য মতে, চট্টগ্রামে এ পর্যন্ত ৩ লাখ ৪৫ হাজারের মতো টিকাগ্রহীতা তাদের দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন।

এর আগে চট্টগ্রামের (মহানগরসহ জেলায়) মোট ৪ লাখ ৫৩ হাজার ৭৬০ জন মানুষ এই (অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রেজেনেকার) টিকার প্রথম ডোজ নেন। হিসেবে প্রথম ডোজ নেয়া আরো প্রায় লক্ষাধিক টিকা গ্রহীতা দ্বিতীয় ডোজের অপেক্ষায় আছেন।

এদিকে, দেশে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছে চট্টগ্রামের মানুষ। সরকারের এক প্রতিবেদনে এই তথ্য উঠে এসেছে।

প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ মিলে সবচেয়ে বেশি ২৩ লাখ ৬৩ হাজার ২২১ ডোজ টিকা দেয়া হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগে। এর মধ্যে প্রথম ডোজ দেয়া হয়েছে ১৪ লাখ ৭৪ হাজার ৭০৭ জনকে। আর দ্বিতীয় ডোজ নিয়েছেন আট লাখ ৮৫ হাজার ৫১৪ জন।