ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে শিক্ষক আটক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:৩৬ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১ | আপডেট: ৬:০২:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

নোয়াখালীর চাটখিলে নবম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে (১৫) ধর্ষণের অভিযোগে গৃহশিক্ষককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তার শিক্ষকের নাম ফারাবি আহাম্মদ ফয়েজ (২৫)। মঙ্গলবার রাতে উপজেলার পরকোট গ্রাম থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে চাটখিল থানা পুলিশ। বুধবার সকালে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা যায়, চাটখিল এলাকার রুহুল আমিনের ছেলে ফারাবি আহাম্মদ ফয়েজ নবম শ্রেণির ওই স্কুল ছাত্রীর গৃহশিক্ষক ছিলেন। সেই সুবাধে গত দুই বছর ধরে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ওই স্কুল ছাত্রীকে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে ধর্ষণ করেন।

সর্বশেষ গত ৬ জুুুুলাই তাদেরকে এলাকাবাসী আপত্তিকর অবস্থায় আটক করে। পরে গ্রাম্য শালিসে ভুক্তভোগী স্কুল ছাত্রীকে বিয়ে করার শর্তে অভিযুক্ত ফারাবীকে কৌশলে ছাড়িয়ে নিয়ে যায় তার বাবা।

পরবর্তীতে ফারাবীর বাবা জানায় এই মেয়েকে তার ছেলেকে বিয়ে করবে না।এরপর অসহায় পরিবারটি আইনের আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়। মঙ্গলবার রাতে ছাত্রীটির বাবা বাদি হয়ে চাটখিল থানায় লিখিত অভিযোগ দিলে পুলিশ অভিযোগটি ধর্ষণ মামলা হিসেবে নথিভুক্ত করে তাকে গ্রেপ্তার করে।

ওসি মো. আনোয়ারুল ইসলাম জানান, অভিযোগ পেয়ে অভিযুক্ত শিক্ষককে গ্রেপ্তারে তাৎক্ষণিক মাঠে নামে পুলিশ। ফারাবিকে নারী ও শিশু নির্যাতন মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে দুপুরের দিকে নোয়াখালীর চিফ জুড়িশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হয়।