‘জামায়াত-শিবিরের নেতাকর্মীদের বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতার পরিকল্পনা ছিলো’

প্রকাশিত: ৬:১৬ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯ | আপডেট: ৬:১৬:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১১, ২০১৯
টাঙ্গাইল জেলা

বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতার পরিকল্পনার অভিযোগে জামায়াত-শিবিরের ৩৬ জন নেতাকর্মীকে আটকের বিষয় নিয়ে বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেছে জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বিপিএম।

পুলিশ সুপারের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সঞ্জিত কুমার রায় জানান, গতকাল মঙ্গলবার বনভোজনের নামে তারা যমুনা নদীতে নাশকতার পরিকল্পনা করছিলো। ওই সময় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গোপালপুর উপজেলা জামাতের আমির গোলাম মোস্তফা রঞ্জুসহ ৩ জনকে আটক করা হয়।

তাদের দেয়া তথ্য অনুযায়ি বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে জামাত শিবিরের ৩৬ জন নেতা কর্মীকে আটক করা হয়। তাদের কাছে বিভিন্ন ধরনের জিহাদি বই, লিফলেট পাওয়া গেছে।

আটককৃতদের মধ্যে একজন গোপালপুর উপজেলা জামাতের আমিরসহ কয়েকজনের নামে প‚র্ব থেকেই দেশের বিভিন্ন থানায় নাশকতার মামলা ছিলো।

পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় বিপিএম বলেন, আটককৃত জামায়াত-শিবিরের লোকজন দেশের বৃহৎ স্থাপনা বঙ্গবন্ধু সেতুতে নাশকতার পরিকল্পনায় করেছিল। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য পূর্বে তারা বনভোজনের নামে সেতু এলাকায় রেকি করেছে।

এর আগেও তারা নৌকা ভ্রমনে গিয়ে সরকার উৎখাতে বিভিন্ন ধরনের পরিকল্পনা করে। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে রিমান্ড আবেদন করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।