জেমসের ‘বাবা’ গেয়ে বিপাকে নোবেল!

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:০৭ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৮ | আপডেট: ১২:০৭:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৮

মাইনুল আহসান নোবেল। এখন তার পরিচিতি দেশজুড়ে। ভারতের জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘সা রে গা মা পা’তে জেমসের ‘বাবা’ গানটি গেয়েই এই পরিচিতি পেয়েছেন নোবেল।

সংগীত বিষয়ক ‘সা রে গা মা পা’র এবারের বিচারক হিসেবে আছেন বরেণ্য সংগীতশিল্পী শ্রীকান্ত আচার্য, বলিউডজয়ী গায়িকা মোনালী ঠাকুর, কৈশীকি চক্রবর্তী ও সান্তুনু মৈত্র।

নোবেলের পরিবেশনায় ‘বাবা’ গানটি শোনার পর তারা প্রত্যেকেই দাঁড়িয়ে তাকে উৎসাহ দেন। আগুনঝরা সেই পরিবেশনায় গোটা মঞ্চে যেন উৎসবের বন্যা বয়ে যায়।

এদিকে, নোবেলের পরিবেশনার মুহুর্তটি ছড়িয়ে পড়ে গোটা অনলাইনে। রাতারাতি ভাইরাল হয়ে যান তিনি। প্রত্যেকের কাছ থেকেই আসে অনাকাঙ্খিত প্রশংসা। প্রতিভাবান এই যুবকের প্রতি শুভকামনাও জানিয়েছেন অনেকেই।

তবে বিপত্তি বাঁধে অন্য জায়গায়। ‘বাবা’ গানটি গাওয়ার আগে নোবেল কেবল বলেছিলেন, ‘জেমসের বাবা গান’। অর্থাৎ গানের গীতিকার, সুরকার ও সংগীত পরিচালকের নাম উল্লেখ করেননি তিনি।

এই ব্যাপারটিকে একেবারে সহজভাবে নেননি বোদ্ধারা। একটি গানের মূল স্রষ্টা গীতিকার ও সুরকার। তার নাম বাদ দিয়ে গানটি পরিবেশনা করা অনুচিত বলেই মন্তব্য করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

এদিকে, এই ঘটনায় নিজের ভুল বুঝতে পেরেছেন নোবেল। দুঃখ প্রকাশ করেছেন তিনি। নোবেল বলেন, আমি শ্রদ্ধেয় প্রিন্স মাহমুদ স্যারের সুর ও কথায় শ্রদ্ধেয় জেমস স্যারের ‘বাবা কতদিন দেখিনা তোমায়’ গানটি ‘সা রে গা মা পা’-র মঞ্চে গেয়েছি।

সেখানে প্রিন্স মাহমুদ স্যারের নামটি উল্লেখ করতে পারিনি বলে অন্তরের অন্তস্থল থেকে দুঃখ প্রকাশ করছি। এটা আমার ইচ্ছেকৃত নয় বরং আমি একটু বিচলিত ছিলাম। আমি আবারো বলছি, ভীষণভাবে দুঃখিত। আপনারা সবাই আমার জন্য দোয়া করবেন।

এবারের ‘সা রে গা মা পা’তে বাংলাদেশ থেকে অংশ নিয়েছেন বেশ কয়েকজন প্রতিযোগী। তাদের মধ্যে আছেন নোবেল, অবন্তি সিঁথি, মন্টি, মেজবাহ বাপ্পী প্রমুখ।