টাঙ্গাইলে ২০ দিন আটকে রেখে ধর্ষণের শিকার সেই ছাত্রী উদ্ধার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৫৪ পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯ | আপডেট: ১১:৫৪:পূর্বাহ্ণ, জানুয়ারি ১৫, ২০১৯
সংগৃহীত

টাঙ্গাইলের সখীপুরে প্রায় ২০ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করা সেই মাদ্রাসাছাত্রীকে (১৪) উদ্ধার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সোমবার (১৪ জানুয়ারি) রাতে গ্রেফতার বাসের হেলপার মজিবুর রহমান (৪২) এর তথ্যের ভিত্তিতে মাদ্রাসাছাত্রীকে উদ্ধার করা হয়।

সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমির হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। এর আগে রোববার (১৩ জানুয়ারি) রাতে ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।মামলার পরই আসামিদের গ্রেফতার করে পুলিশ।

মামলা সূত্রে জানা যায়, মজিবুর রহমান ওই ছাত্রী মাদ্রাসা যাওয়ার পথে কুপ্রস্তাব দিতো। এতে ছাত্রীটি রাজি হয়নি। এ অবস্থায় গত ২৪ ডিসেম্বর ওই ছাত্রী উপজেলার কালিয়া বাজারে কেনাকাটার জন্য যায়।

এর পর থেকেই ওই ছাত্রীকে আর পাওয়া যায়নি। মামলায় আরো উল্লেখ করা হয় মজিবর কালিয়া বাজার থেকে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এর পর থেকে তাকে আটকে রেখে একাধিকবার জোর পূর্বক ধর্ষণ করে।

ওই ছাত্রীর মা বলেন, অভিযুক্ত মজিবর প্রতিবেশি হওয়ায় আমার মেয়েকে তার প্রবাসী ছেলের বউ করার জন্য নানাভাবে প্রস্তাব দেন। তাকে বলেছি; মেয়েকে আরও পড়াশোনা করাব, উচ্চ শিক্ষিত করব, বিয়েতে রাজি হইনি।

ওই লম্পট আমার মেয়ের সর্বনাশ করে দিয়েছে। আমার মেয়ের শরীর আর মনের ওপর দিয়ে যা গেছে, তার নিরাময় কে করবে? আমি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার দাবি করছি।

সখীপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আমির হোসেন জানান, রিমান্ডে আনার পর মজিবরের দেয়া তথ্যের ভিক্তিতে মেয়েটিকে উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতার মজিবরের দুইজন স্ত্রী রয়েছে। তাদের মধ্যে তার প্রথম স্ত্রীকেও গ্রেফতার করা হয়েছে।