ডিভোর্সের ঘোষণা দিয়ে ন্যান্সির হৃদয়স্পর্শী স্ট্যাটাস

টিবিটি টিবিটি

বিনোদন ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:২৯ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১ | আপডেট: ৫:২৯:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

স্বামী-স্ত্রীর বিচ্ছেদ সাধারণত বিরূপ পরিস্থিতি সাপেক্ষেই ঘটে থাকে। কিন্তু জনপ্রিয় সঙ্গীতশিল্পী নাজমুন মুনিরা ন্যান্সি দ্বিতীয় স্বামীর সাথে তার বিচ্ছেদকে ‘মধুর’ হিসেবেই অভিহিত করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, স্বামীর কাছ থেকে আলাদা হয়ে তিনি নতুন পথে যাত্রা শুরু করেছেন।

বুধবার দুপুর আড়াইটায় তিনি তার ভেরিফাইড ফেসবুক পেজে এ সম্পর্কে একটি পোস্ট দিয়েছেন। পাঠকদের জন্য নিচে হুবহু তা তুলে ধরা হলো :

‘সংসার জীবনে বিচ্ছেদ মানেই মানসিক নিপীড়ন, পরিবারের দূর সম্পর্কের আত্মীয়দের টিপ্পনি, সমাজের নোংরা কথা… ইত্যাদি ইত্যাদি ইত্যাদি। কিন্তু নিজের ওপর ভরসা থাকলে এই কঠিন সময়টাও সহজ হয়ে যায়। আমার বেলায় তাই হয়েছে। দুটো মানুষ একে অপরের বিরক্তির কারণ না হয়ে বরং সম্মানের সঙ্গে আলাদা হয়ে যাওয়াই শ্রেয়। নতুন পথে যাত্রা শুরু করলাম। তাই বলি— বিচ্ছেদ কখনও মধুরও হয়।’

জানা গেছে, স্বামী জায়েদের সঙ্গে বহুদিন ধরেই বনীবনা হচ্ছিল না ন্যান্সির। তারা বেশ কিছুদিন ধরে আলাদা থাকছেন। এর আগে গত এপ্রিলের শেষের দিকে অপর এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে ন্যান্সি জানিয়েছিলেন, তিনি এখন আর দ্বিতীয় স্বামীর সংসারে নেই। অনেক দিন ধরেই আলাদা থাকছেন। তবে দুজনের মধ্যে বিচ্ছেদ হয়নি।

তখন তিনি বলেছিলেন, বিষয়টি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমে বেশি আলোচনা সমলোচনা হচ্ছে। তবে ওসবে কান দিতে নারাজ তিনি। বলেন, কে কি বলছেন তার চেয়ে বড় কথা হলো, বিষয়টি সামাজিক মাধ্যমে জানিয়ে আমি বেশ তৃপ্ত।

‘যেটা ঘটে গেছে সেটা মনের মধ্যে চেপে রেখে কষ্ট বাড়িয়ে লাভ নেই। সবাইকে বাস্তব অবস্থাটা জানাতে পেরে খুব হালকা লাগছে আমার।’

বিচ্ছেদ হয়নি অথচ আলাদা থাকার বিষয়ে তখন তিনি বলেন, আলাদা থাকার কারণটা আমি নিজেও সেভাবে জানি না। তবে আমাদের সম্পর্কটা বেশ শীতল হয়ে যাচ্ছিল। মনে হলো এভাবে আর একসাথে থাকা যায় না। তারপরই এমন সিদ্ধান্ত নিলাম। এমনও হতে পারে জায়েদের সাথে আমার কোনোদিনই বিচ্ছেদ হবে না। আর এখন আমার মেয়ে রোদেলার বিয়ের প্রস্তাব আসছে! আমি নতুন করে জীবন শুরু করার চিন্তা করছি না।

‘অবশ্যই সময় ও পরিস্থিতির ওপর অনেক কিছুই নির্ভর করে। তাই সময়ের ওপরই সব ছেড়ে দিয়েছি। তবে জীবন একটাই। আমি জীবনটাকে জটিলতার মাঝে রাখতে চাই না।’

২০১৩ সালের ৪ মার্চ ময়মনসিংহের নাজিমুজ্জামান জায়েদকে বিয়ে করেন ন্যান্সি। জায়েদ ও ন্যান্সির সংসারে নায়লা নামে একটি কন্যাসন্তান রয়েছে। জায়েদ ময়মনসিংহ পৌরসভায় চাকরির পাশাপাশি ব্যবসা করেন।

জায়েদের সঙ্গে সংসার শুরু করার আগে ২০০৬ সালে আরেক ব্যবসায়ী আবু সাঈদ সৌরভকে বিয়ে করেছিলেন ন্যান্সি। ২০১২ সালের ২৪ মে ছয় বছরের সেই সংসারের ইতি টানেন তারা। পরের বছরই দ্বিতীয় সংসার শুরু করেন ন্যান্সি। প্রথম সংসারে রোদেলা নামে তার আরেকটি কন্যাসন্তান আছে।

ন্যান্সির সংগীতজীবন শুরু হয় ২০০৬ সালে ‘হৃদয়ের কথা’ চলচ্চিত্রে গান গেয়ে। ২০০৯ সালে তার প্রথম অ্যালবাম ‘ভালোবাসা অধরা’ প্রকাশিত হয়। ২০১১ সালে ‘প্রজাপতি’ সিনেমার গানে কণ্ঠ দিয়ে তিনি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছিলেন।