ড. কামালের ‘হ্যাঁ’, ফখরুলের ‘না’

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৫:১৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯ | আপডেট: ৫:১৯:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৫, ২০১৯
ফাইল ছবি

বিএনপিকে রেখেই একাদশ জাতীয় সংসদে যাচ্ছে ঐক্যফ্রন্ট। এমনটিই ইঙ্গিত দিয়েছেন ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন।

আজ শনিবার সংবাদ সম্মেলনে এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন তিনি। সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, শপথ গ্রহণের ক্ষেত্রে ইতিবাচক সিদ্ধান্ত নেবে গণফোরাম।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ঐক্যফ্রন্ট সাত আসনে জয় পায়। ঐক্যফ্রন্টের অন্যতম শরীক গণফোরাম দুই আসনে জয় পায়। এর মধ্যে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সুলতান মনসুর এবং গণফোরাম নিজস্ব প্রতীক উদীয়মান সূর্য নিয়ে মোকাব্বির খান নির্বাচিত হন। এ ছাড়া বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুলসহ পাঁচজন নির্বাচিত হন। বিএনপির এ পাঁচজনকে রেখেই গণফোরামের দুই সদস্য এমপি হিসেবে শপথ নিচ্ছেন বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন ড. কামাল।

বিএনপি শপথ না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এতে দ্বিমত ঐক্যফ্রন্ট তথা ড. কামাল হোসেনের গণফোরামের। ঐক্যফ্রন্টের শরীক গণফোরামের দুই নির্বাচিত সংসদ সদস্য শপথ নিতে চান। তাদের মতে সংসদের বাইরে শুধু নয় সংসদের ভেতরে থেকেও সরকারের সমালোচনা করা প্রয়োজন। এই যুক্তিতে শপথ নিতে চান তারা।

এর আগে আজ সকালে দলীয় নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন গণফোরামের নেতা ড. কামাল। বৈঠক শেষে বিকাল ৪টায় সংবাদ সম্মেলনে তিনি জানান, গণফোরামের দুই প্রার্থীর শপথ নেওয়ার বিষয়ে তারা ইতিবাচক। জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মিডিয়া কো-অর্ডিনেটর ও গণফোরাম নেতা লতিফুল বারী হামিমও বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তবে বিএনপি প্রার্থীরা শপথ নেবে না বলে ঘোষণা করেছেন দলটি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। গত বৃহস্পতিবার তিনি জানান, নির্বাচনের ফলকে পুরোপুরি প্রত্যাখ্যান করেছি। আমরা মনে করি, এ কলঙ্কজনক নির্বাচন বাতিল করে আবার অনুষ্ঠিত করতে হবে এবং এটা অবিলম্বে নির্দলীয়-নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। তিনি বলেন নির্বাচন প্রত্যাখান করলে আবার শপথ নেব কিভাবে। আমি পরিষ্কার বলছি শপথ নেব না।