ঢাকার পর এবার গুপ্তধনের খোঁজে রাজশাহী পুলিশ, যা পাওয়া গেল

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১:০৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৮ | আপডেট: ১:০৪:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৪, ২০১৮
গুপ্তধনের অনুসন্ধানস্থলে সাধারণ মানুষ

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার বাউসা ইউনিয়নের পীরগাছা গ্রামে গুপ্তধন আছে। গুপ্তধন পাওয়ার খবরে দিনব্যাপী ছিল আলোচনার ঝড়। এমন গুঞ্জন গত এক সপ্তাহ ধরে চারদিকে চউর হতে থাকে।

মঙ্গলবার বিকালে সরেজমিন ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা যায়, নাটোরের লালপুর উপজেলার রাধাকান্তপুর গ্রামের বিলকিস, মুনজুরা, আইনাল, বাঘা উপজেলার পাশের গ্রাম তেথুলিয়ার বেলালসহ এলাকার লোকজন গুপ্তধন পাওয়ার খবরে ছুটে আসেন সেখানে।

গুপ্তধন মনে করে বিষয়টি বাঘা থানা পুলিশকে মুঠোফোনে জানান এলাকাবাসি। থানা পুলিশের একটি টিম দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে এলাকার শত শত নারী-পুরুষের উপস্থিতিতে সাড়ে চারফুট মাটি খনন করেও গুপ্তধন বা তেমন কোনো কিছুই পাননি।

সেখানে কোনো গুপ্তধন আছে কিনা তাও নিশ্চিত হতে পারছিলেন না সংশ্লিষ্টরা। তবে কিছু আগরবাতি, টিস্যু ও গেঞ্জির ছেঁড়া অংশ পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পীরগাছা গ্রামের আড়ানী মাদ্রাসার শতবর্ষী আমবাগানের দক্ষিন পার্শে গুপ্তধন পাওয়ার এ খবরে এলাকায় চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়।

এলাকার বজলু ও হেলেনা জানান, সেখানে কিছু মাটি খোড়া ছিল। মাঠে যাতায়াতকারি লোকজন বিষয়টি দেখার পর গুপ্তধন মনে করে।

এলাকার বয়স্কদের মধ্যে কেউ কেউ বলেন, সেখানে দামি কোন কষ্টিপাথর ছিল।

স্থানীয় থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তঅ (ওসি) মহসীন আলী জানান, খবর পেয়ে দুইজন অফিসারসহ ফোর্স সেখানে পাঠিয়েছিলেন। জনসন্মুখে মাটি খুঁড়ে কিছু পাওয়া যায়নি। কিছু পাওয়ার মতোও কোন আলামত মেলেনি।