তিনদিন ধরে নিখোঁজ জবি শিক্ষার্থী কামরুল

প্রকাশিত: ৮:৫১ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮ | আপডেট: ৮:৫১:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৫, ২০১৮

আসলাম হোসেন, জবি: জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) নৃবিজ্ঞান বিভাগের কামরুল হাছান নামের এক শিক্ষার্থী গত রোববার থেকে নিখোঁজ রয়েছেন। পরিবারের দাবি সাদা পোশাকে ডিবি পুলিশ তাকে আটক করেছে। কামরুল জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের নৃবিজ্ঞান বিভাগের ২য় বষের চতুর্থ সেমিস্টারে অধ্যয়নরত রয়েছেন।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, গত রোববার কামরুল নিজের ছোট ভাইকে নিয়ে পাসপোর্ট অফিসের উদ্দেশ্যে বাসা থেকে বের হয়।

পথিমধ্যে রাজধানীর সুরিটোলা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে আসলে একদল সাদা পোশাকধারী লোক তাকে গাড়িতে উঠিয়ে নেয়। এসময় তারা নিজেদেরকে ডিবি বলে পরিচয় দেয়। কামরুলের সাথে থাকা ছোট ভাই জাহিদকে মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে দেখা করতে বলেন সাদা পোশাকধারী একজন।

পরবর্তীতে জাহিদ ডিবি কার্যালয়ে গেলে সেখান থেকে তাকেও তুলে নেয় ডিবি পরিচয়দানকারীরা। এরপর তাকে গাড়িতে করে আবার বংশাল নিয়ে এসে বাসায় অভিযান চালায় ডিবি।

সেখান থেকে তার বিভিন্ন বই পুস্তুক ও ল্যাপটপ জব্দ করে সাদা পোশাকধারী ডিবি পুলিশ। এরপর জাহিদকে ছেড়ে দিয়ে কামরুলকে আবারও নিয়ে যাওয়া হয়। এরপর থেকেই কামরুলের আর খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না।

নিখোঁজ কামরুলের মা কহিনুর আক্তার বলেন, তিনদিন হলো আমার ছেলেকে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে আটক করা হয়েছে। কামরুলকে ডিবি কার্যালয়ে দেখা গেছে পাশাপাশি তাকে নিয়ে বংশালে তার মেসেও অভিযান চালানো হয়েছে। কিন্তু এখনো তার কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছে না। তাকে কারা নিয়েছে কেন নিয়েছে কিছুই জানতে পারছি না। এসময় তিনি কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন।

এ বিষয়ে জবি প্রক্টর ড. নুর মোহাম্মদ বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো ছাত্রকে আটক করা হয়েছে বলে আমি জানি না। কেউ অভিযোগ জানালে আমরা ব্যবস্থা নিবো।

বংশাল থানার ওসি শাহিদুর রহমান বলেন, আমাদের থানার পুলিশ জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনো ছাত্রকে আটক করেনি। আর অন্য কোন বাহিনী জগন্নাথের কোন ছাত্রকে আটক করেছে কিনা তা আমাদের জানা নেই।