তোমরা টেস্ট খেল ওয়ানডে স্টাইলে: জিম্বাবুয়ে তারকা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩৭ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮ | আপডেট: ১১:৩৭:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৬, ২০১৮
সংগৃহীত

সংবাদ সম্মেলনে এসে জিম্বাবুয়ের তারকা টেন্ডাই চাতারা বলেই ফেললেন যে, ‘তোমরা (বাংলাদেশি ক্রিকেটার) টেস্ট খেল ওয়ানডে স্টাইলে।’ এক লাইনেই প্রমাণ হয়ে যায়, যে সমস্যাটা বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা ধরতে পারছে না, সেটা ধরে ফেলেছে প্রতিপক্ষ ক্রিকেটার!

‘বাংলাদেশ কি টেস্ট খেলতে পারে?’ প্রশ্নটা একজন সহকর্মী সাংবাদিকের। সিলেট টেস্টের প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা যখন যাওয়া-আসার মিছিলে ব্যস্ত, তখন বিরক্ত হয়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

সহকর্মীর মন্তব্যে যে খুব একটা ভুল নেই তা যে কেউ স্বীকার করবেন। ১৮ বছর হয়ে গেল টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার, কিন্তু এখন পর্যন্ত টেস্ট মেজাজটাই তো তৈরি হলো না দেশের ব্যাটম্যানদের মধ্যে!

জিম্বাবুয়ে শক্তির দিক দিয়ে বাংলাদেশের চেয়ে অনেক পিছিয়ে। কিন্তু সিলেট টেস্টে তাদের অনেক পরিণত মনে হয়েছে। তাদের ব্যাটিং ততটা সুবিধার না হলেও তাতে টেস্ট মেজাজ ছিল। স্বাগতিক দল হুটহাট শট খেলতে যায়। খোঁচা মেরে ক্যাচ দেয় উইকেটকিপারকে।

মজার ব্যাপার হলো, চাতারার এই উপলব্ধি মেনে নিয়েছেন বাংলাদেশ কোচ স্টিভ রোডস। তিনি বলেছেন, ‘চাতারা ঠিকই বলেছে। আমরা সাদা বলের ব্যাটিং করে ফেলেছি, তখন আমাদের করা উচিত ছিল নড়ছে চড়ছে এমন লাল বলের শট খেলা।

পুরো সপ্তাহ ধরে কিন্তু আমাদের চেষ্টা ছিল সাদা বলের শটগুলো (আক্রমণাত্মক) ব্যাটসম্যানদের মাথা থেকে বের করা নিয়ে। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনক হলো, প্রথম ইনিংসে আমরা তেমন বেশ কিছু শট খেলে ফেলেছি।’

বাংলাদেশ এভাবে হুড়মুড় করে ভেঙে পড়বে সেটাও মানতে পারছেন না স্টিভ রোডস। প্রতিশ্রুতি দিলেন দ্বিতীয় ইনিংসে ভালো করার, ‘অনেকটাই নিষ্প্রাণ উইকেটে ১৪৩ রানে অলআউট হওয়া খুবই হতাশার।

তবে কেন, সেই উত্তর আমি সবসময় জানি না। দিনটিতে আমাদের কিছুই ঠিকঠাক হয়নি। আমার ধারণা, ড্রেসিং রুম সেটা পুষিয়ে দিতে প্রস্তুত। হবে কিনা জানি না, তবে চেষ্টা নিশ্চিতভাবেই করব আমরা।’