দশম শ্রেণির ছাত্রীর হিজাব নিয়ে কটূক্তি, ফেঁসে গেলেন দুই শিক্ষক

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:২৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯ | আপডেট: ১১:২৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০১৯

দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মানিকগঞ্জের দৌলতপুরে হিজাব নিয়ে এক মেধাবী শিক্ষার্থীকে কটূক্তি করার অভিযোগ উঠেছে। অভিযুক্তরা হলেন- সরকারি প্রমোদা সুন্দরী মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী সহকারী শিক্ষিকা নুসরাত সুলতানা।

বুধবার দুপুরে ওই শিক্ষকদের বিরুদ্ধে মানববন্ধন করেছে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী, তার সহপাঠী ও অভিভাবকরা।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, স্কুলের সাবেক অভিভাবক সদস্য হাবিবুর রহমান, অভিভাবক শামীমুল ইসলাম বাবুল, মো. জুলহাস উদ্দিন, আমজাদ হোসেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মো. শওকত আলী খান, কোষাধ্যক্ষ মঞ্জুরুল হক বুলবুল, দফতর সম্পাদক বাবুল আক্তার টিপু প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান ও তার স্ত্রী নুসরাত সুলতানা স্কুলের শিক্ষার্থীদের নানাভাবে কটূক্তি ও হয়রানি করেন। ক্লাসে তাদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন। দশম শ্রেণির এক মেধাবী ছাত্রীকে হিজাব নিয়ে কটুক্তি করায় সে এক বছর ধরে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। একই কারণে আরো অনেক শিক্ষার্থী স্কুলে যেতে চায় না।

বক্তারা আরো বলেন, এসব বিষয়ে ইউএনও এবং জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাকে লিখিত জানানো হলেও অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে না। আমরা তাদের দ্রুত অপসারণের দাবি জানাই।

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান বলেন, আমাদের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ সত্য নয়। আমরা কোনো শিক্ষার্থীদের কটূক্তি করিনি। একটি মহল আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।