দুবাইয়ে পার্কে তরুণীকে ধর্ষণের অভিযোগে বাংলাদেশি যুবক গ্রেপ্তার

প্রকাশিত: ৫:৪৯ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯ | আপডেট: ৫:৪৯:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ১৪, ২০১৯
দুবাইয়ের আল মামজার পার্ক। ছবি: ইন্টারনেট

পাকিস্তানি এক যুবতীকে দুবাইয়ের একটি পার্কে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেপ্তার করা হয়েছে এক বাংলাদেশীকে। তাকে হস্তান্তর করা হয়েছে দুবাই পাবলিক প্রসিকিউশনে। খবর খালিজ টাইমস।

দুবাই পুলিশের বরাত দিয়ে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সেদিনের ঘটনার বর্ণনায় ধর্ষণের শিকার পাকিস্তানি তরুণী বলেছেন, এক বন্ধুর সঙ্গে পার্কে বসেছিলেন তিনি। সে সময় মিউনিসিপ্যালিটির কর্মী পরিচয় দিয়ে ওই যুবক তাদের কাছে পরিচয়পত্র দেখতে চান ও ৫০০ দিরহাম জরিমানা দাবি করেন। এ অবস্থায় তাকে সেখানে রেখে তার বন্ধু গাড়ি থেকে পরিচয়পত্র ও জরিমানার অর্থ আনতে পার্কিং এলাকায় যান। এই সুযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তি ওই তরুণীকে টেনে-হিঁচড়ে গাছপালায় ঘেরা একটি নির্জন এলাকার দিকে নিয়ে যান এবং বালুর ওপর ফেলে শারীরিক নির্যাতন করেন।

তরুণীর অভিযোগ, সে সময় তিনি চিৎকার করতে চাইলে তার মুখ চেপে রাখেন অভিযুক্ত। পরে তাকে ফেলে রেখে তিনি ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান। এ সময় তার মোবাইল ফোনটিও কেড়ে নেওয়া হয় বলে জানান নির্যাতনের শিকার তরুণী।

পরে বন্ধুর কাছে গিয়ে পরিস্থিতি জানালে তারা পুলিশ ডাকেন। ঘটনাস্থলে পৌঁছে সুরতহাল ও অভিযুক্তের শারীরিক গড়নের বর্ণনা থেকে ধারণা করে বাংলাদেশি ওই ব্যক্তিকে শারজার আল ঘাফিয়া এলাকার একটি বাসা থেকে আটক করে পুলিশ।

খালিজ টাইমস আরও জানিয়েছে, অভিযুক্ত বাংলাদেশি এক সময় দুবাই মিউনিসিপ্যালিটির কর্মী ছিলেন। তবে বর্তমানে তার চাকরি ও দেশটিতে অবস্থানের বৈধতা নেই। তিনি স্বীকার করেছেন, দুবাই মিউনিসিপ্যালিটির পুরোনো পরিচয়পত্র দেখিয়েই তিনি মেয়েটিকে ফাঁদে ফেলেন।

দুবাই পাবলিক প্রসিকিউশন জানায়, ধর্ষণের অভিযোগও স্বীকার করে নিয়েছেন ওই বাংলাদেশি। এছাড়া ডিএনএ টেস্টেও বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। দুবাইয়ের সরকারি আদালতে এ মামলার বিচার চলছে।