ধান কাটা উৎসবে ইউএনও সোনিয়া সুলতানার ব্যতিক্রমী উদ্যোগ

হাবিবুল্লাহ হেলালি হাবিবুল্লাহ হেলালি

দোয়ারাবাজার(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি

প্রকাশিত: ৯:০৪ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২০ | আপডেট: ৯:০৪:অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৪, ২০২০

পহেলা বৈশাখে হাওরে ধান কাটা উৎসবে শ্রমিকদের মধ্যে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও খাবার বিতরণ করেছেন দোয়ারাবাজার উপজেলার ইউএনও সোনিয়া সুলতানা।

এ উপলক্ষে মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার সুরমা ইউনিয়নের কনছখাই হাওরে ধান কাটার শ্রমিকদের মধ্যে একটি করে মাস্ক, গামছা, সাবান ও ১ প্যাকেট করে
বিস্কিট বিতরণ করা হয়। করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবকালীন শ্রমিক সংকটে স্বাস্থ্যবিধি ও নির্দেশনা মেনে স্থানীয় কৃষকদের ধান কাটায় ব্যাপকভাবে উৎসাহ প্রদানের অংশ হিসেবে এমন ব্যতিক্রমী উদ্যোগ নেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর। এসময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সোনিয়া সুলতানা ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শেখ মো. মহসিন শ্রমিকদের সাথে ধান কেটে এ উৎসবের উদ্বোধন করেন।

ইউএনও সোনিয়া সুলতানা জানান, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের ফলে হাওর এলাকায় চরম শ্রমিক সংকট দেখা দিয়েছে। সবাই এখন ঘরবন্দি হয়ে পড়েছেন। অতিবৃষ্টি ও অকাল বন্যার পূর্বেই সোনালী ফসল বোরো ধান কৃষকের গোলায় তুলতে ইতিমধ্যে উপজেলায় কৃষকদের মধ্যে দুটি ধান কাটার আধুনিক মেশিন ভর্তূকী মূল্যে প্রদান করা হয়েছে। এছাড়াও চলতি মৌসুমে প্রত্যেক হাওরের পাকা ধান দ্রæত কেটে ফেলার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে স্থানীয় শ্রমিকদের ব্যাপকভাবে ধান কাটার কাজে লাগিয়ে দেয়ার তাগিদ দেয়া হচ্ছে। আশা করি কৃষকরা সরকারি নির্দেশনা মতো দ্রæত হাওরে ধান কাটা শুরু করলে ভাল ভাবেই
এবার বোরো ধান কৃষকের গোলায় ওঠবে। ধান কাটা উৎসবে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, কৃষকরা উপস্থিত ছিলেন।