নারায়ণগরঞ্জ ‘কাজের মেয়ে’ বলায় মহিলা দল নেত্রীদের মধ্যে হাতাহাতি (ভিডিও)

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৮:০৫ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ৮:০৫:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩১, ২০১৮

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতারকৃত অধ্যাপক মামুন মাহমুদকে আদালতপাড়ায় দেখতে গিয়ে জেলা মহিলা দলের দুই গ্রুপ নেত্রীর মধ্যে হাতাহাতি ও অশ্লীল বাক্যবিনিময়ের ঘটনা ঘটেছে। কাজের মেয়ে বলায় বুধবার বিকেল ৩টায় জেলা মহিলা দলের আহ্বায়ক নুরুন্নাহার বেগম ও যুগ্ম আহ্বায়ক রহিমা শরীফ মায়া গ্রুপের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ সময় বিএনপির নেতাকর্মীরা এগিয়ে এসে তাদের শান্ত করেন। এ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ আদালতপাড়ায় ব্যাপক চাঞ্চল্যর সৃষ্টি হয়।





নুরুন্নাহার বেগম জানান, মামুন মাহমুদকে কোর্ট গারদে নেয়ার সময় পারভীন আক্তার, মাকসুদাসহ আমরা কয়েকজন পিছু পিছু যাচ্ছিলাম। এ সময় রহিমা শরীফ মায়া, পপিসহ কয়েকজন আমাদের মাকসুদাকে কাজের মেয়ে বলে গালি দেয়। এ নিয়ে প্রতিবাদ করেছি।

রহিমা শরীফ মায়ার দাবি, মামুন মাহমুদকে গারদে নেয়ার সময় আমরা তার পিছু পিছু যাচ্ছিলাম। এ সময় গায়েপড়ে নূরুন্নাহার আমাদের মারধরের চেষ্টা করে। এ সময় আমরাও প্রতিবাদ করলে উভয়ের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে।





মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবু আল ইউসুফ খান টিপু জানান, তুচ্ছ ঘটনায় নিজেদের মধ্যে বাগ্বিতণ্ডা হয়েছে। আমরা শান্ত করেছি।

কোর্ট পুলিশের পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জানান, মামুন মাহমুদসহ ৪ জনকে সদর থানার একটি নাশকতার মামলায় ১০ দিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতে পাঠিয়েছে পুলিশ। আদালত আগামী রোববার রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করে তাদের জেলহাজতে প্রেরণ করেছেন।