নিজ বাড়িতে খুন হলেন কুষ্টিয়ায় সাব-রেজিস্ট্রার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৪৫ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৯, ২০১৮ | আপডেট: ১০:৪৫:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ৯, ২০১৮

সোমবার রাত ১১টার দিকে শহরের বাবর আলী গেট সংলগ্ন ভাড়া বাসার রান্না ঘর থেকে গামছা দিয়ে হাত-পা বাঁধা মারাত্মক জখম অবস্থায় নুর মোহাম্মদকে উদ্ধার করে পুলিশ।

কুষ্টিয়ায় বাড়িতে ঢুকে সদর উপজেলা সাব-রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদ শাহকে (৫৫) ছুরিকাঘাত ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। পরে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে। কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার এসএম তানভির আরাফাত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয়রা জানান, চাকরির সুবাদে শহরের বাবর আলী গেট সংলগ্ন একটি বহুতল ভবনের তৃতীয় তলায় ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়ে একাই বাস করতেন নুর মোহাম্মদ। সোমবার রাত ১১টার দিকে সিঁড়িতে মানুষের দৌড়ানোর শব্দ শুনে বাড়িওয়ালা ও ভাড়াটিয়ারা বাইরে বেরিয়ে আসেন।

এসময় কয়েকজনকে তড়িঘড়ি করে সিঁড়ি দিয়ে নেমে যেতে দেখে তাদের সন্দেহ হয়। তারা সাব-রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদের ঘরে গিয়ে দেখেন হাত-পা বাঁধা মারাত্মক জখমভাবে তিনি মেঝেতে পড়ে আছেন।

সদর ফাাঁড়ির ইনচার্জ সন্তু বিশ্বাস জানান, রাত ১১টার দিকে বাড়ির মালিক হানিফ আলী পুলিশকে ফোন করে জানান- সাব-রেজিস্ট্রার নুর মোহাম্মদ হাত-পা বাঁধা অবস্থায় ঘরের মধ্যে পড়ে আছেন। সংবাদ পেয়ে তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক রাজিবুল হাসান জানান, হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই নুর মোহাম্মদের মৃত্যু হয়েছে। তার দুই হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর চিহ্ন আছে।

কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি নাসির উদ্দিন জানান, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কিছু আলামতও উদ্ধার করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডের ব্যাপারে তদন্ত চলছে। এছাড়া বাড়ির সিসি ক্যামেরার ফুটেজ চেক করে দেখা হচ্ছে।

আশাকরি খুব শিগগিরই অপরাধীদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় নিয়ে আসা সম্ভব হবে। নিহত নুর মোহম্মদের বাড়ি কুড়িগ্রাম জেলায়। হত্যার কারণ এখনো জানা যায়নি।