নির্বাচনে আসবে যুক্তফ্রন্ট: সেতুমন্ত্রী

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:২২ পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৮ | আপডেট: ১০:২৪:পূর্বাহ্ণ, নভেম্বর ৩, ২০১৮
ফাইল ছবি

শুক্রবার দিবাগত রাতে সংলাপ শেষে প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, তাদের খুবই ইতিবাচক বলে মনে হয়েছে, নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে যুক্তফ্রন্ট অত্যন্ত গঠনমূলক ও ইতিবাচক কথা বলেছে। যুক্তফ্রন্ট নির্বাচনে আসবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, কিছু কিছু বিষয়ে যুক্তফ্রন্ট দাবি হিসেবে এনেছে, তা আমরা মেনে নিয়েছি। সব দাবি তো আর মানা যাবে না। এখানে সংবিধান সংশোধনের সঙ্গে কিছু দাবি জড়িত। তবে তাদের ধন্যবাদ দিতে হবে যে, সংবিধান সংশোধন কিংবা পরিবর্তন করতে হবে, এমন কোনো মেজর দাবি তারা করেননি।





তিনি আরও বলেন, তাদের আলোচনা থেকে এই সুরই স্পষ্ট হয়েছে যে, তারা সরকার পরিবর্তন কিংবা নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে জোর কোনো দাবি উত্থাপন করেননি। আমাদের কাছে মনে হয়েছে, তারা হ্যাপি।

যে সাত দফা দাবি নিয়ে যুক্তফ্রন্টের নেতারা আলোচনায় বসেছিলেন তাদের প্রথম দাবি ছিল- নির্বাচনে প্রার্থীদের জন্য ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ নিশ্চিত করা। সংসদ ভেঙে দেয়া, সম্ভব না হলে নিষ্ক্রিয় রাখা। এ প্রসঙ্গে কাদের বলেন, আমাদের এমপি-মন্ত্রীরা নিজ নিজ এলাকায় উদ্বোধনের কাজ করে ফেলেছেন। আজকে ময়মনসিংহে প্রধানমন্ত্রী ১৯৬টি প্রকল্পের উদ্বোধন বা ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেছেন। এই সুযোগ যদি শিডিউলের পরে থাকত, তবে এতগুলো প্রকল্পে উদ্বোধনের কথা ছিল না।





দ্বিতীয় দাবি ছিল- নির্বাচনের সঙ্গে প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষভাবে জড়িত কর্মচারীদের নির্বাচন কমিশনের অধীনে ন্যস্ত করা। নির্বাচন কমিশনকে শতভাগ রাষ্ট্রপতির অধীনে রাখা। তফসিল ঘোষণার পর এমপিরা যাতে সংশ্লিষ্ট এলাকায় কোনো প্রকল্প উদ্বোধন বা প্রতিশ্রুতি দিতে না পারেন সেজন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া। প্রয়োজনে আইন করে মন্ত্রী ও এমপিদের সরকারি সুযোগ-সুবিধা প্রত্যাহার করা।

ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীদের বিল বোর্ড, ব্যানার, পোস্টার অপসারণ করা।

এ ব্যাপারে তিনি বলেন, দুই নম্বরে তারা যেটা বলেছেন, তা আমরা মেনে নিয়েছি। … এ বিষয়গুলো গতবারও ছিল, এবারও থাকবে।

গত ৩১ অক্টোবর বিকল্পধারার চেয়ারম্যান বি. চৌধুরী সংলাপ চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে চিঠি দেন। এরপর গণভবনে তাদের শুক্রবার সংলাপের আমন্ত্রণ জানিয়ে চিঠি দেয় আওয়ামী লীগ।