প্রবাসীদের জন্য নতুন আইন পাশ করলো কাতার

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১২:৪৪ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮ | আপডেট: ১২:৪৪:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮
ছবিঃ সংগৃহীত

অবশেষে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠনগুলোর তীব্র সমালোচনার মুখে কাতারে প্রচলিত বিতর্কিত ভিসা পদ্ধতির সংস্কার করা হলো। প্রতিষ্ঠানের মালিকের অনুমতি ছাড়াই কাতার ত্যাগ করতে পারবেন প্রবাসীরা। কাতারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রবিবার এক টুইট বার্তায় এই তথ্য প্রকাশ করেছে। খবর এনডিটিভির।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এক টুইট বার্তায় ঘোষণা করেছে, প্রবাসীদের প্রবেশ, প্রস্থান ও থাকার অনুমতি বিষয়ে নতুন এই আইন রবিবার থেকে কার্যকর হলো।’

সেপ্টেম্বরে কাতার সরকার ঘোষণা দিয়েছিল, ‘ভিসা পদ্ধতি বাতিল নিয়ে একটি আইন পাশ হয়েছে। দেশটিতে এত দিন ধরে ‘কাফালা বা স্পন্সরশিপ’ ভিসা ব্যবস্থা প্রচলিত ছিল। যাকে আধুনিক যুগের দাসপ্রথা হিসেবে ধরা হয়।

এনডিটিভির খবর বলা হয়, নতুন আইন অনুযায়ী একটি প্রতিষ্ঠানের পাঁচ শতাংশ কর্মী- যারা উচ্চ পর্যায়ে রয়েছেন তারা প্রতিষ্ঠানের মালিকের পূর্বঅনুমতি ছাড়াই কাতার ত্যাগ করতে পারবেন।’

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, যদি কোনো কারণে তাদেরকে কাতার ত্যাগে বাধা দেয়া হয় তাহলে ভুক্তভোগীরা প্রবাসী প্রস্থান অভিযোগ কমিটিকে তাদের অভিযোগ লিখিত আকারে জানাতে হবে। তিন কার্য দিবসের মধ্যেই এই বিষয়ে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

গত বছরের নভেম্বরে ভিসার সংস্কার বিষয়ে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার সঙ্গে তিন বছরের একটি চুক্তি করে কাতার। তারপর কাতারের এই নতুন ভিসা পদ্ধতি ঘোষণা বিশাল পদক্ষেপ।

২০২২ সালে বিশ্বকাপ ফুটবল অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে কাতারে। মানবাধিকার সংস্থাগুলো বার বার কাতারের শ্রম আইনের সংস্কারের বিষয়ে বলে আসছিল। কাতারের এত দিন ধরে চলে আসা ভিসা পদ্ধতি বাতিলের জন্য দীর্ঘ দিন ধরেই সমালোচকরা আপত্তি জানিয়ে আসছে।

গত বছর মানবাধিকার সংস্থা মাইগ্র্যান্ট-রাইটস ডট অর্গ প্রকাশিত এক গবেষণায় বলা হয়, কাতারের প্রচলিত ভিসা ব্যবস্থায় এক তৃতীয়াংশ প্রবাসীর দেশত্যাগের ভিসা প্রত্যাখ্যান করছে দেশটির সরকার।