প্রেমিকার বিয়ে হওয়ায় কলেজ পড়ুয়া প্রেমিকের আত্মহত্যা

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৬:০১ অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১ | আপডেট: ৬:০৪:অপরাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

বগুড়ার শাজাহানপুরে পছন্দের মেয়েকে বিয়ে করতে না পেরে অভিমানে ইঁদুর নিধনে ব্যবহৃত ‘গ্যাস ট্যাবলেট’ খেয়ে ফয়সাল হাসান ওরফে লিটন (২০) নামের এক কলেজছাত্র আত্মহত্যা করেছেন। গ্যাস ট্যাবলেট খাওয়ার আগে তার ব্যবহৃত ফেসবুক প্রোফাইল ও কাভার ছবিতে অফলাইন লিখে কালো রঙ করে দেন তিনি।

গতকাল মঙ্গলবার দিবাগত রাত সোয়া ১টার দিকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ফয়সালের মৃত্যু হয়।

ফয়সাল হোসেন উপজেলার আড়িয়া ইউনিয়নের মানিকদিপা নিশানচড়া গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলামের ছেলে। তিনি বগুড়া সরকারি শাহসুলতান কলেজে ডিগ্রিতে পড়াশোখা করতেন।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, স্থানীয় এক মেয়ের সঙ্গে ফয়সাল হোসেনের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কিন্তু ওই মেয়ের অন্যত্র বিয়ে হয়ে গেলেও ফয়সাল হোসেন তাকে ভুলতে পারছিলেন না। এ নিয়ে পারিবারিকভাবে বাবা-মার সঙ্গে মনোমালিন্য হওয়ার অভিমান করে গতকাল দিবাগত রাত ৯টার দিকে ফয়সাল হোসেন বিষাক্ত গ্যাস ট্যাবলেট খেয়ে ফেলেন।

কিছুক্ষণ পর রক্তবমি শুরু হলে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় তাকে রাতেই বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ভর্তি করা হয়। সেখানে রাত সোয়া ১টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

শাজাহানপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল্লাহ আল মামুন জানান, ফয়সাল মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। এর আগেও তিনি দুবার আত্মহত্যার চেষ্টা করেছিল। তার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।