ফিলিস্তিনে ইসরাইলের অবৈধ দখলদারিত্বের তীব্র নিন্দায় বাংলাদেশ

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১০:৩৪ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | আপডেট: ১০:৩৪:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯

ফিলিস্তিনের পশ্চিম তীরে ইসরাইলের অবৈধ দখলদারিত্ব ও সে দেশের প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু কর্তৃক জর্ডানের উপত্যকা দখলের হুমকির তীব্র নিন্দা জানিয়েছে বাংলাদেশ।

সৌদি আরবের স্থানীয় সময় রোববার রাতে ইসলামি সহযোগিতা সংস্থার (ওআইসির) পররাষ্ট্র মন্ত্রীদের বিশেষ সভায় রিয়াদে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসীহ এ কথা বলেন।

গোলাম মসীহ বলেন, ‘সংবিধান অনুযায়ী বাংলাদেশ নিপীড়িত মানুষের পাশে থাকার এবং যেকোনো মূল্যে মুসলিম উম্মাহর একতা বজায় রাখার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে।’

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনে স্থায়ীভাবে শান্তি প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে জাতিসংঘের সংশ্লিষ্ট রেজুলেশনের বাস্তবায়ন, রোড ম্যাপ ও আরব শান্তি পরিকল্পনার গুরুত্ব সর্বাধিক। ‘বাংলাদেশ ওআইসি ও জাতিসংঘের সদস্য হিসেবে ফিলিস্তিন প্রশ্নে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের সাথে কাজ করে যাবে,’ যোগ করেন তিনি।

এছাড়া, আসন্ন জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশনে ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রসমূহকে তাদের মূল বক্তব্যে এ বিষয়টি তুলে ধরার আহ্বান জানান তিনি।

সৌদি আরবের পররাষ্ট্র মন্ত্রী ইব্রাহিম আবদুল আজিজ আল- আসাফের সভাপতিত্বে বিশেষ সভায় সৌদি আরব ছাড়াও তুরস্ক, কুয়েত, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ফিলিস্তিনসহ আরও ২০টি দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রীরা যোগদান করেন।

সভায় ফিলিস্তিন বিষয়ে যে রেজুলেশনটি গৃহীত হয়, সেখানে জাতিসংঘের আসন্ন সাধারণ পরিষদের সম্মেলনে ইসরায়েলের আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ওআইসি সদস্য রাষ্ট্রসমূহকে কথা বলার অনুরোধ জানিয়ে দেয়া বাংলাদেশের প্রস্তাবনা সর্বসম্মতিক্রমে অন্তর্ভুক্ত হয়।

এছাড়াও সভায় সম্প্রতি সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশের তেলক্ষেত্রে ড্রোন হামলার তীব্র নিন্দা জানানো হয় এবং এ বিষয়ে একটি পৃথক রেজুলেশন গ্রহণ করা হয়।

সভা শেষে রাষ্ট্রদূত ওআইসির মহাসচিব ড. ইউসুফ বিন আহমেদ আল-ওথাইমিনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন ও আগামী বছর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের জন্য গঠিত আন্তর্জাতিক কমিটির সদস্য হওয়ার আমন্ত্রণ পত্র তুলে দিলে মহাসচিব সানন্দচিত্তে তা গ্রহণ করেন।