বছরের শেষদিনে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার রেকর্ড

প্রকাশিত: ৭:০০ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮ | আপডেট: ৭:০০:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৩১, ২০১৮

নির্বাচনের গরমে শেষ হতে চলেছে বছরের শেষ সময়গুলো। নির্বাচনী উৎসবমূখর পরিবেশে নেতাকর্মী ও সমর্থকদের ছোটাছুটিতে যেন কোথায় পালিয়ে গিয়েছিল শীত। কিন্তু নির্বাচন শেষ হতেই যেন থেমে গেল সবকিছু। চারিদিকের সেই উৎসবের আমেজ ফুরিয়ে যেতেই স্বমহিমায় হাজির হয়েছে শীতকাল। হবেই বা না কেন? ভরা শীতের এক মাস যে চলে গেল!

বছরের শেষ এবং নতুন বছরের শুরুতে তীব্র শৈত্যপ্রবাহে কাঁপছে উত্তরাঞ্চল। বছরের শেষ দিনে পঞ্চগড়ে এ মৌসুমের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নেমেছে। এছাড়া দেশের অন্যত্র মৃদু থেকে মাঝারি ধরণের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, এই অবস্থা আগামী তিন থেকে চার দিন অব্যাহত থাকবে। ফলে থার্টি ফাস্ট নাইট এবং বছরের শুরুর দিনটিও শীত অনুভূত হতে পারে।

আবহাওয়ার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, পঞ্চগড় জেলায় তীব্র শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে। এছাড়াও টাঙ্গাইল, মাদারীপুর, গোপালগঞ্জ, সীতাকুণ্ড, শ্রীমঙ্গল, নওগাঁ, খুলনা, যশোর, চুয়াডাঙ্গা এবং বরিশাল অঞ্চলসহ রংপুর বিভাগের অবশিষ্টাংশ ও মংয়মনসিংহ বিভাগের উপর দিয়ে মৃদু থেকে মাঝারি ধরণের শৈত্যপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা কিছু জায়গায় অব্যাহত থাকতে পারে।

সোমবার পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় সর্বনিম্ন ৫ দশমিক ১ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে বলে জানায় আবহাওয়া অফিস। এছাড়া দিনাজপুরে ৭.৫ ডিগ্রী, ডিমলায় ৮ ডিগ্রী, রাজারহাটে ৮.১, ময়মনসিংহে ৮.৮, রাজশাহীতে ৯, রংপুরে ১০ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে।

এদিন বিভাগীয় শহর বরিশালে ৯.৭, খুলনায় ১০, সিলেটে ১২.৮, ঢাকায় ১২.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে আবহাওয়া অফিস। আগামী ৭২ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে।

আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যানুযায়ী, বাতাসের তাপমাত্রা ৬-৮ ডিগ্রী সেলসিয়াসের মধ্যে হলে তাকে মাঝারি, ৮-১০ ডিগ্রীর মধ্যে হলে তাকে মৃদু, আর তাপমাত্রা ৬ ডিগ্রী নিচে হলে তাকে বলে তীব্র শৈত্যপ্রবাহ।