বিমান বিধ্বস্ত : ১৮৯ যাত্রীর কেউ বেঁচে নেই

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৭:৪০ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮ | আপডেট: ৭:৪০:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ২৯, ২০১৮
উদ্ধারকর্মীদের একটি ছবি। ছবি: ইউইয়র্ক টাইমস

ইন্দোনেশিয়ার জাভা উপদ্বীপের উত্তরে লায়ন এয়ারওয়েজের বিমান দুর্ঘটনায় কোনো যাত্রী বেঁচে নেই বলে জানিয়েছে ইন্দোনেশিয়ার উদ্ধার ও অনুসন্ধান সংস্থা।

সোমবার সকালে জাকার্তা বিমানবন্দর থেকে লায়ন এয়ারের জেটি-৬১০ ফ্লাইটটি পাংকাল পিনাংয়ের উদ্দেশে যাত্রা করে। জাভা প্রদেশের পশ্চিমাঞ্চলের কারাওয়াং শহর থেকে বিমানটি নিখোঁজ হয়। উড্ডয়নের ১৩ মিনিটের মাথায় স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৬টার দিকে কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয় এটির। বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স ৮ মডেলের বিমানটি তখন সাগর থেকে এক হাজার ১১৩ মিটার ওপরে ছিল। ফ্লাইটের যাত্রীদের মধ্যে তিনটি শিশুও ছিল। বিমানে দুজন পাইলট এবং পাঁচজন কেবিন ক্রু ছিলেন।

ইন্দোনেশিয়ার এয়ার ন্যাভিগেশন কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র ইয়োহানেস সিরাইত জানান, কন্ট্রোল রুমের সঙ্গে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার পূর্বে পাইলট জাকার্তা বিমানবন্দরে ফেরত আসছে বলে জানিয়েছিল।

সিরাইত বলেন, ‘কন্ট্রোল রুম তাকে অনুমতি দিয়েছিল। কিন্তু কিছুক্ষণ পরই যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়।’

অনুসন্ধান ও উদ্ধারকারী সংস্থার প্রধান মোহাম্মদ সাইয়্যিগি জানান, বিমানটি্র যোগাযোগ যেখান থেকে বিচ্ছিন্ন হয়েছিল সেখান থেকে ধ্বংসাবশেষ উদ্ধার করা হয়েছে।

সিএনএনের এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, বিধ্বস্ত এলাকা থেকে ভাসমান অবস্থায় হাতব্যাগ, মানিব্যাগ, মোবাইলফোন এবং পোশাক উদ্ধার করা হয়েছে। ডুবুরিসহ ২৫০ জন উদ্ধাকারী দল নৌকা, হেলিকপ্টার নিয়ে ধ্বংসাবশেষ উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

কর্তৃপক্ষ বলছে, তারা এখনো বিমানটির মূল কাঠামো এবং জরুরি লোকেটর ট্রান্সমিটার উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।