মঠবাড়িয়ায় গৃহকর্মীকে পালাক্রমে গণধর্ষণ!

প্রকাশিত: ৪:১৮ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯ | আপডেট: ৪:১৮:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
প্রতীকী ছবি

মজিবর রহমান, মঠবাড়িয়া প্রতিনিধি: পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ায় এক গৃহকর্মী ( ১৯) গণধর্ষণের শিকার হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার দেবত্র গ্রামে এ গন ধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

গণধর্ষণের শিকার ওই গৃহকর্মীূ বাদী হয়ে রোববার রাতে উপজেলার দাউদখালী গ্রামের আফজাল খানের ছেলে সুমন খান (২৩), ছালাম হাওলদারের ছেলে ইমরান হাওলাদার (২৫)ও জিয়াম হাওলাদারের ছেলে রাজু হাওলাদার (২২) এর নামে মঠবাড়িয়া থানায় মামলা করে।

মামলা সূত্রে জানা যায়, দাউদখালী গ্রামের ওই যুবতী পাশর্^বর্তী দেবএ গ্রামের এক বাড়ীতে গৃহকর্মীর কাজ করেন।আসামীরা আসা –যাওয়ার পথে প্রায়ই ওই যুবতীকে উত্যক্ত করে আসছিল।

গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বাড়ী থেকে দেবএ গ্রামের ওই বাড়ীতে কাজ করার জন্য যাওয়ার সময় যুবতীকে তিন নরপশু মুখ চেপে ধরে একটি সরকারি ক্লিনিকের ছাদের উপর নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এ সময় মাছ ধরতে যাওয়া এক লোক ধর্ষকদের কথ শুনে ছাদে গিয়ে টর্চলাইট মারলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়।

মঠবাড়িয়া থানা অফিসার ইন চার্জ (ওসি) সৈয়দ আব্দুল্লাহ জানান,গন ধর্ষণের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে।আসামীদের গ্রেপ্তারের অভিযান চলছে। ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য গৃহকর্মীকে সোমবার সকালে পিরোজপুর সিভিল সার্জনের কাছে পাঠানো হয়েছে।