‘মনে হচ্ছে খাশোগি আর বেঁচে নেই’

টিবিটি টিবিটি

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৩৩ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০১৮ | আপডেট: ৯:৩৩:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ১৯, ২০১৮

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বৃহস্পতিবার বলেছেন, এটা মনে হচ্ছে যে সৌদির ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগি আর বেঁচে নেই। খাশোগি গেল ২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর থেকে নিখোঁজ হওয়ার পর এই প্রথম তার জীবিত না থাকার বিষয়টি স্বীকার করলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। খবর ইউএসএ টুডের।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট বলেন, নিশ্চিতভাবেই আমার কাছে এমনটা মনে হচ্ছে, এটা খুবই বিষাদময়। মন্টানার মিসৌলায় একটি নির্বাচনী র‌্যালির জন্য এয়ার ফোর্স ওয়ানে প্রবেশের আগে সাংবাদিককে এ কথা বলেন ট্রাম্প। তবে এ বিষয়ে বিস্তারিত কিছু জানাননি তিনি।

পরে অবশ্য দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে ট্রাম্প বলেন, ‘সব পক্ষের গোয়েন্দা প্রতিবেদনের’ ভিত্তিতে তিনি এই উপসংহারের পৌঁছেছেন। তিনি বলেন, যদি সব অলৌকিক ঘটনাকে ছাপিয়ে যাওয়ার মতো অলৌকিক ঘটনা না ঘটে, তাহলে আমি বলবো তিনি আর বেঁচে নেই।

এদিকে সাংবাদিক খাশোগি হত্যায় সৌদি সরকারের জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে রিয়াদকে ‘খুবই মারাত্মক’ পরিণতি ভোগ করতে হবে বলেও হুমকি দিয়েছেন ট্রাম্প। তিনি বলেন, মানে এগুলো খারাপ, খারাপ কাজ।

তবে যদি সত্যিই খাশোগি হত্যায় রিয়াদের সংশ্লিষ্টতা থাকে তাহলে তার প্রশাসন কী ধরনের পদক্ষেপ নেবে সে ব্যাপারে বিস্তারিত বলেননি মার্কিন প্রেসিডেন্ট। তবে মার্কিন আইনপ্রণেতারা সৌদির ওপর অর্থনৈতিক নিষেধাজ্ঞা থেকে শুরু করে অস্ত্র বিক্রি বন্ধ করে দেয়ার মতো বিভিন্ন পদক্ষেপ নেয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন। যদিও ট্রাম্প বলেছেন, তিনি যুক্তরাষ্ট্র ও সৌদি আরবের দীর্ঘদিনের সম্পর্কের ব্যাঘাত ঘটাতে চান না।

উল্লেখ্য, ওয়াশিংটন পোস্টের কলাম লেখক জামাল খাশোগি গেল ২ অক্টোবর বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় নথি সংগ্রহে তুরস্কের ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটের ভেতর প্রবেশ করেন। কিন্তু এরপর থেকে তাকে আর দেখা যায়নি। খাশোগি ও তার পরিবারের দাবি, তাকে কনস্যুলেটের ভেতরই হত্যা করা হয়েছে। যদিও সৌদি আরব শুরু থেকেই এ ধরনের অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।