মিরপুর আলিফ সোবহান চৌধুরী কলেজে অধ্যক্ষের অপসারণ দাবি

প্রকাশিত: ৭:৩২ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯ | আপডেট: ৭:৩২:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ১৫, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

জেলার বাহুবল উপজেলার মিরপুর আলিফ সোবহান চৌধুরী সরকারী কলেজের অধ্যক্ষের কার্যালয়ে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি টানিয়ে না রাখায় বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা।

শনিবার দিনব্যাপী কলেজ প্রাঙ্গণে এ কর্মসূচি পালনকালে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমানের অপসারণের দাবীতে দুই দিনের আল্টিমেটাম দেওয়া হয়। আর ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ দাবী করছেন, সংস্কার কাজের জন্য সাময়িক সময়ের জন্য বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি নামানো হয়েছিল।

জানা যায়, বেশ কয়েক দিন আগে হঠাৎ করেই অধ্যক্ষের কার্যালয় থেকে উধাও হয়ে যায় বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি। বিষয়টি নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের মধ্যে চলে আসছিল কানাঘুষা।

একপর্যায়ে তা ক্ষোভে পরিণত হয়। এরই ধারাবাহিকতায় শনিবার সকাল থেকে কলেজ ক্যাম্পাসে সাধারণ শিক্ষার্থীদের ব্যানারে দিনভর চলে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েশা হক ও বাহুবল মডেল থানার ওসি মোঃ কামরুজ্জামান। এতে পরিস্থিতি শান্ত হয়।

এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মাহবুবুর রহমান বলেন, কার্যালয়ের সংস্কার কাজের জন্য জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছবি সাময়িক ভাবে সরানো হয়েছিল।

কাজ শেষে গত বৃহস্পতিবারই আবারো ছবিগুলো যথাস্থানে পুনঃস্থাপন করা হয়। কিন্তু তৃতীয় একটি স্বার্থান্বেষী মহল সাধারণ শিক্ষার্থীদের ভূল বুঝিয়ে পরিস্থিতি ঘোলাটে করার চেষ্টা করছে।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আয়েশা হক বলেন, খবর পেয়ে আমি তাৎক্ষণিক ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করি। তবে যে কারণে এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে প্রাথমিক ভাবে এর সত্যতা পাওয়া যায়নি। আমি ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষের কার্যালয়ে প্রবেশ করে যাথারীতি ছবিগুলো দেখতে পেয়েছি। কিন্তু তার পরও বিষয়টি গুরুত্বের সাথে খতিয়ে দেখা হচ্ছে।