মুক্তিযোদ্ধার মেয়ে শিউলী মালাকে সংরক্ষিত আসনে এমপি চান নরসিংদীবাসী

প্রকাশিত: ৭:৪৮ অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৯ | আপডেট: ৭:৪৮:অপরাহ্ণ, জানুয়ারি ৯, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

তারেক পাঠান, পলাশ (নরসিংদী) প্রতিনিধি : একাদশ জাতীয় সংসদের সংরক্ষিত ৫০টি নারী আসনের মধ্যে প্রয়াত মুক্তিযোদ্ধা ডা.মুজিবর রহমান খান এর মেয়ে ও বাংলাদেশ আওয়ামী তাঁতীলীগের জনপ্রিয় নেত্রী ঢাকা মহানগর উত্তর এর সহ-সভাপতি এবং দনিয়া বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ হাজার হাজার মানুষ গড়ার কারিগড় নরসিংদীর মেয়ে সায়রা বেগম শিউলী মালাকে এমপি হিসেবে দেখতে চায় নরসিংদীবাসী।

সদ্য সমাপ্ত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে-পরে এই নারী নেত্রী নিজ উদ্দ্যেগে সরকারের উন্নয়ন চিত্র জনগণের সামনে তুলে ধরেছেন। নির্বাচনের আগে জনগণের সামনে সরকারের উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে তৃণমূল চষে বেড়িয়েছেন।

জানা যায়,জনপ্রিয় এই নেত্রী নরসিংদীর পলাশ উপজেলার ডাঙ্গা ইউনিয়নের কাজইর গ্রামের স্থায়ী বাসিন্দা। তার স্বামীর মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সমাজ বিজ্ঞানের এম ,এস,এস শেষ করেন। তার পিতা দেশ মাতৃকার টানে জীবন বাজি রেখে দেশের জন্য যুদ্ধ করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় জনপ্রিয় এই নেত্রী সায়রা বেগম শিউলীমালা জেলা বাসীর কল্যানে সর্বক্ষণ কাজ করছেন।

তার গতিশীল সাংগঠনিক কর্মতৎপরতায় বর্তমানে সংগঠন অত্যন্ত সু-সংগঠিত হয়েছে। সায়রা বেগম শিউলীমালা গরিব দু:খি মানুষদের ভালোবাসেন। তাদের সুখে দু:খে সবসময়ই পাশে থাকেন। পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ টেলিভিশনের এ” গ্রেড ভুক্ত সংঙ্গীত শিল্পী ও উপস্থাপিকা হিসেবে কাজ করছেন।

এই বিষয়ে সায়রা বেগম শিউলী মালা তার অনুভূতি প্রকাশ করে বলেন, স্বাধীনতার ঘোষক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবর রহমানের ডাকে আমার বাবা জিবন বাজি রেখে মুক্তিযুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়েছিল। সেই থেকে আমাদের পরিবারের সবাই বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দলকে মনে প্রাণে ভালবাসে।

২০০১ সালে ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে আমি মনোনয়ন প্রত্যাশি ছিলাম। আমি আশা করি এই বার ও নেত্রী সর্ব দিগ দিয়ে যাকে যোগ্য মনে করেন, তাকেই সংরক্ষিত মহিলা আসনে এমপি হিসেবে বাছাই করবেন।