মেয়ে প্রতিবন্ধী, জবাবে মা ঐ মেয়ে নিয়ে আমরা কী করবো?

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:৫৫ পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০১৮ | আপডেট: ৯:৫৫:পূর্বাহ্ণ, অক্টোবর ২৮, ২০১৮
ছবিঃ সংগৃহিত

টিবিটি সারাবিশ্বঃসন্তান মানুষের অমূল্য সম্পদ।আর সন্তানের জন্ম থেকে বড় হয়ে ওঠা পর্যন্ত তার সবচেয়ে বড় ভরসা হলো বাবা-মা। আর সেই মা-ই যদি সদ্য জন্ম নেয়া শিশুকে ভাসাতে যান নদীর জলে, সে কথা অনেকের কাছেই বিশ্বাসযোগ্য নয়।

তবে এমনই অদ্ভূত ঘটনা ঘটেছে ভারতে। বিশেষ শারীরিক সক্ষম কন্যাসন্তান হওয়ায় গঙ্গার জলে ভাসিয়ে দিতে যাচ্ছিলেন মা। স্থানীয়দের উদ্যোগে উদ্ধার হল ফুটফুটে শিশুকন্যাটি।

সেইমতো মায়ের সঙ্গে গিয়েছিলেন দাদু, দিদিমা, বাবা ও পিসি। এমন অমানবিক ঘটনা ঘটেছে কাটোয়ার হরিসভা পাড়া ঘাটে। গঙ্গার পারে বসবাসকারী বাসিন্দারা বিষয়টি দেখে পেলেন। ওই শিশুকন্যাকে উদ্ধার করেন তাঁকে।

মা, বাবা, দাদু, দিদিমা ও পিসিকে আটকে রেখে খবর দেওয়া হয় পুলিসে। শিশুকন্যাকে কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য পাঠানো হয়।

অভিযুক্তদের বাড়ি কাটোয়া থানা এলাকার মোস্তফাপুর গ্রামে।

মোস্তফাপুর গ্রামের বাসিন্দা পারমিতা হালদার কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালে এক কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। শনিবার সকালে হাসপাতাল থেকে ছাড় পান তিনি। স্বামী শান্তু হালদার, দিদিমা সরস্বতী হালদার, দিদিমা, দাদু বিশ্বনাথ হালদার ও পিসির সঙ্গে ৬ দিনের শিশু কন্যাকে নিয়ে হাজির হন ঘাটে হন পারমিতা।

জেরায় অভিযোগ স্বীকার করে পারমিতা বলেন, ”ওই মেয়ে নিয়ে আমরা কী করবো? তাই নদীতে ফেলে দিয়েছি”।-জিনিউজ