যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীর যৌনাঙ্গে মরিচের গুড়া দেয় পাষন্ড স্বামী!

প্রকাশিত: ৪:১৩ অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯ | আপডেট: ৪:১৩:অপরাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
ছবি: টিবিটি

শাহ মোঃ সারওয়ার জাহান, কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি: মাত্র ৫০ হাজার টাকা যৌতুক না পাওযায় স্বামী তার প্রিয়তমা স্ত্রীর যৌনাঙ্গে ঢেলে দিল মরিচের গুড়া। লোমহর্ষক এ ঘটনা ঘটেছে কিশোরগঞ্জ জেলার হোসেনপুর উপজেলার উত্তর গোবিন্দপুর গ্রামে।

জানা গেছে, বিগত চারমাস পূর্বে নান্দাইল উপজেলাধীন হরিপুর (কচুরী) গ্রামের আবুল কাশেমের মেয়ে লাইলী আক্তার (১৯) এর হোসেনপুর উপজেলাধীন উত্তর গোবিন্দপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মিজানুর রহমান (২৪) এর বিবাহ হয়।

৪ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্য্য করে করে মুসলিম বিবাহ রীতিতে রেজিঃ কাবিনমূলে বিবাহের পর স্বামীর বাড়ীর লোকদের অত্যাচার নির্যাতনে নগদ ৮০ হাজার টাকা প্রদান করেও অত্যাচারের মাত্রা কমেনি।

ঘটনার বিবরণে প্রকাশ মিজানুর রহমান স্থানীয় বাকচান্দা বাজারের কসমেটিকস ব্যবসায়ী নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গত ১৯ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার রাতে ৯টার সময় স্ত্রী লাইলীর হাত পা বেধে নির্যাতনের এক পর্যায়ে যৌনাঙ্গে শুকনা মরিচের গুড়া পানিতে মিশিয়ে ঢেলে দেয়। অবস্থার ভয়াবহতা সহ্য করতে না পেরে পুকুরে ঝাপ দেয়।

সারারাত পুকুরে থেকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় লাইলীকে তার মা মর্তুজা ও ভাই মিজানকে খবর দিলে স্থানীয় ৩ নং গোবিন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম হিমেল ভিকটিমকে পিতার বাড়ীতে নিয়ে যেতে বলেন। নিরুপায় হয়ে বিধবা মা ও ভাই ভিকটিমকে কিশোরগঞ্জ ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

এ ব্যাপারে লাইলীর ভাই মোঃ আলামিন বাদী হয়ে ৪ জনকে আসামী করে হোসেনপুর থানায় নারী শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন। মামলা নং- ১০/১০৪, তারিখ- ২১/৯/২০১৯ খ্রি.। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আসামীদের কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। ভিকটিমের অবস্থা আশংকাজনক।