রাজশাহীর মেয়ে সুসানে গীতি প্রথম নারী মেজর জেনারেল হওয়ায় ইয়্যাস’র অভিনন্দন

টিবিটি টিবিটি

নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ৯:০৯ অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৮ | আপডেট: ৯:০৯:অপরাহ্ণ, অক্টোবর ৩, ২০১৮

বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর ইতিহাসে সর্বপ্রথম নারী হিসেবে রাজশাহীর মেয়ে ডা. সুসানে গীতি মেজর জেনারেল পদে পদোন্নতি পাওয়ায় অভিনন্দন জানিয়েছে রাজশাহীর তরুণ সংগঠন ইয়্যাস (ইয়ুথ এ্যাকশন ফর সোস্যাল চেঞ্জ)। ডা. সুসানে মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদ মো. খলিলুর রহমানের কন্যা। তাঁর বড় ভাই রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন প্রধান প্রকৌশলী মো. লুৎফর রহমান।

বুধবার সন্ধ্যায় তরুণ সংগঠনটির সভাপতি শামীউল আলীম শাওন এবং সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলাম আকাশ এক যুক্ত বিবৃতিতে বলেন, রাজশাহীর মেয়ে এবং শহীদ পরিবারের সদস্য সশস্ত্র বাহিনীর ইতিহাসে সর্বপ্রথম নারী হিসেবে মেজর জেনারেল পদে পদোন্নতি পাওয়ায় আমরা গর্বিত। নারী সমাজের এগিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে তিনি দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবেন। আমরা তাঁর পেশাগত জীবনের সাফল্য কামনা করছি।

মেজর জেনারেল সুসানে গীতি ১৯৮৫ সালে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাস করেন। পরবর্তী সময় ১৯৮৬ সালে তিনি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে নারী ডাক্তার হিসেবে ক্যাপ্টেন পদবিতে যোগদান করেন। তিনি ১৯৯৬ সালে প্রথম নারী হিসেবে হেমাটোলজিতে এফসিপিএস ডিগ্রি অর্জন করেন। এ ছাড়া তিনি জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী মিশন এবং বিভিন্ন সামরিক হাসপাতালে প্যাথলজি বিশেষজ্ঞের দায়িত্ব পালন করেছেন। বর্তমানে তিনি আর্মড ফোর্সেস মেডিকেল কলেজের প্যাথলজি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান হিসেবে কর্মরত।

উল্লেখ্য, সশস্ত্র বাহিনীর ইতিহাসে সর্বপ্রথম নারী মেজর জেনারেল পদে পদোন্নতি প্রাপ্ত ডা. সুসানে গীতিকে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ ও সেনাবাহিনীর কোয়ার্টার মাস্টার জেনারেল (কিউএমজি) লেফটেন্যান্ট জেনারেল মো. সামছুল হক রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সেনা সদর দপ্তরে মেজর জেনারেল পদবির র‌্যাংক ব্যাজ পরিয়ে দেন।